নিউজপলিটিক্সরাজ্য

পূর্ব মেদিনীপুর থেকে জেলা সফর শুরু করতে চলেছেন যুব তৃণমূল সভানেত্রী সায়নী ঘোষ।

নিজস্ব প্রতিবেদন: একুশের ভোটে গ্ল্যামার জগতের ছড়াছড়ি হয়েছে তৃণমূল এবং বিজেপিতে। সেরকমই তৃণমূলে এবারে গ্ল্যামার জগতের অন্যতম মুখ হলেন অভিনেত্রী সায়নী ঘোষ। আসানসোল দক্ষিণের মাটিতে তিনি লড়াই করেছেন তৃণমূলের প্রার্থী পদে। কিন্তু হেরে গিয়েও তিনি মানুষের কল্যাণার্থে বিভিন্ন কাজ করে চলেছেন।

তৃণমূল মহলে অত্যন্ত জনপ্রিয় সায়নী ঘোষ কে উল্লেখযোগ্য পদ দেওয়ার জন্য তৃণমূল সমর্থক রা প্রবল দাবি জানিয়েছিলেন। অবশেষে সমর্থকদের দাবি মেনে নিয়ে সায়নী ঘোষ কে যুব তৃনমূলের সভানেত্রী পদে আসীন করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। জিততে পারেননি তিনি ঠিকই কিন্তু তৃণমূল সমর্থকদের মনে বিশেষ জায়গা করে নিয়েছেন সায়নী ঘোষ। রাজ্য যুব তৃণমূল সভাপতির আসনে বসানো হয়েছে সায়নী ঘোষ কে।

আরও পড়ুন-“বেশী সময় নেই। কবে জয়েন করাবে তোমরা?” – বাবুল সুপ্রিয় প্রকাশ করলেন মুকুলের বিজেপিতে যোগদানের পূর্বেকার ইঙ্গিত।

এই আসনে আসীন ছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। ‌ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন যে, “সায়নী ঘোষ দলের ফুল টাইমার হিসেবে কাজ করতে চেয়েছেন বলেই যুব সংগঠনের দায়িত্ব তার কাঁধে অর্পণ করা হয়েছে।”সায়নী ঘোষ নতুন দায়িত্বভার পেয়ে যুব সংগঠনকে আরও শক্তিশালী করার লক্ষ্যে ঝাঁপিয়ে পড়েছেন। তিনি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর কাছ থেকে রাজনৈতিক দীক্ষা নিয়েছেন।

আরও পড়ুন-পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বাড়িতে হাজির মাদারিহাটের বিজেপি বিধায়ক । উঠলো জল্পনা।

আলোচনা করেছেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এর সাথেও। যুব সংগঠনের জেলা সভাপতিদের সাথে ভিডিও কনফারেন্সে তিনি বৈঠক সম্পাদন করেছেন। অভিনেত্রী সায়নী ঘোষ এবার যুব সংগঠনকে আরো সুদৃঢ় করে গড়ে তোলার লক্ষ্যে জেলা সফরে বের হতে চলেছেন। শুরুটা তিনি করবেন পূর্ব মেদিনীপুর জেলা থেকেই।

আরও পড়ুন-“সকলকে টীকাকরণ করিয়ে ৫০ জনকে নিয়ে করা যাবে শুটিং।”- নির্দেশিকা জারি মুখ্যমন্ত্রীর।

বাংলার রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে এই পূর্ব মেদিনীপুর জেলার যথেষ্ট গুরুত্ব রয়েছে। এই জেলা থেকেই নিজের রাজনৈতিক গুরুদায়িত্বের সূত্রপাত করবেন সায়নী ঘোষ। ‌ করোনা পরিস্থিতি একটু স্বাভাবিক হওয়ার পর তিনি এই সফর শুরু করবেন বলে জানিয়েছেন। বিভিন্ন জেলায় ঘুরে সংগঠনের সমস্ত কিছু খুঁটিনাটি পর্যবেক্ষণ করবেন তিনি এবং জেলা নেতৃত্বে সাথে বৈঠক করবেন সায়নী ঘোষ।

তিনি বলেছেন, “মুখ্যমন্ত্রী আমাকে যে মহান কর্মযজ্ঞের দায়িত্বভার অর্পণ করেছেন, আমি তা বিশ্বাসের সাথে পালন করব।”

Related Articles

Back to top button