নিউজস্বাস্থ্য

“শুধু স্কুল খুললেই হবে না, মানতে হবে নির্দিষ্ট দূরত্ববিধি”- বললেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বিজ্ঞানী ডঃ সৌম্যা স্বামীনাথন

নিজস্ব প্রতিবেদন: ভারতে আস্তে আস্তে বিভিন্ন রাজ্যে স্কুলগুলি খুলতে শুরু করে দিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা সমস্ত স্কুল গুলি কে সতর্ক করেছে যে স্কুল চত্বরে যেন কড়াভাবে করোনা বিধি মেনে চলা হয়।বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান ট্রেডরস আধানোম ঘেব্রিয়েসাস আগেই বলে দিয়েছেন যে, পৃথিবী করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের একদম প্রাথমিক পর্যায়ে দাঁড়িয়ে রয়েছে।

এই পরিস্থিতিতে যদি স্কুল খুলে দেওয়া হয় তাহলে ছাত্র-ছাত্রীদের সুরক্ষার্থে অবশ্যই স্কুল গুলিতে কড়াভাবে কোভিড বিধি মেনে চলতে হবে।
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান বিজ্ঞানী ডাঃ সৌম্যা স্বামীনাথন গত মঙ্গলবার জানিয়েছেন যে স্কুলগুলি শুধু খুললেই হবে না, সেখানে যাতে সংক্রমণ ছড়িয়ে না পড়ে সেই দিকে যথেষ্ট গুরুত্ব দিতে হবে।ডক্টর স্বামীনাথন বলেছেন,”স্কুল গুলি অবশ্যই খুলতে হবে কিন্তু সেই সাথে স্কুলে যাতে একদমই জমায়েত না হয় সেই সমস্ত বিষয়গুলি খেয়াল রাখতে হবে।

আরও পড়ুন-রাজ্যে ৩০০ জন স্বেচ্ছাসেবকের উপর প্রয়োগ করা হবে ককটেল ভ্যাকসিন

যেমন স্কুলে যে সমস্ত কাজকর্ম দলবেঁধে করতে হয় সেই সমস্ত কাজগুলি এই সময় একদমই বন্ধ রাখতে হবে। স্কুলের শিক্ষক শিক্ষিকা এবং পরিচালন কমিটির সমস্ত সদস্যদের টিকাকরণ অবশ্যই সম্পন্ন করতে হবে। এবং ছাত্র ছাত্রীদের এবং শিক্ষক-শিক্ষিকাদের নির্দিষ্ট দূরত্ব বিধি মেনে চলতে হবে, মাস্ক পরিধান করতে হবে, স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে হবে।

আরও পড়ুন-আজ থেকেই কলকাতায় পাওয়া যাবে করোনার ভ্যাকসিন। বিজ্ঞপ্তি দিল পুরসভা

অনেকেই বলছেন তৃতীয় ঢেউয়ে বাচ্চারা আক্রান্ত হবে কিন্তু এই ব্যাখ্যাটি একদমই বিজ্ঞানসম্মত বলে বিবেচিত হয়নি। ‌ এই পরিস্থিতিতে এখনো আগামী ছয় মাস সমস্ত পৃথিবী জুড়ে সকলকে করোনা বিধি মেনে চলতে হবে, তবেই এই মহামারিকে নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হবে। সারা বিশ্বের মধ্যে যদি টিকাকরণের কাজ অনেকটাই বৃদ্ধি পায় তাহলে এই মহামারী কে নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভবপর হবে বলে আশাবাদী আমরা।

স্কুল গুলি খোলা হলে সেখানে অবশ্যই কড়াভাবে করোনা বিধি মেনে চলতে হবে সকলকেই। এর অন্যথা হলে সকলেই যথেষ্ট সংকটজনক পরিস্থিতির মধ্যে পড়বে।”

Related Articles

Back to top button