“ভালোই ব্যবসা ফেঁদে বসেছ, সবকটার ডানা কাটবো।”- তৃণমূলকে হুঁশিয়ারি দিলেন মিঠুন।

“ভালোই ব্যবসা ফেঁদে বসেছ, সবকটার ডানা কাটবো।”- তৃণমূলকে হুঁশিয়ারি দিলেন মিঠুন।

নিজস্ব প্রতিবেদন: স্টার প্রচারকদের দৌলতে জনসমর্থন আদায়ে তৎপর তৃণমূল-বিজেপি। রাজ্যে চতুর্থ দফার ভোটগ্রহণ হতে চলেছে। তার আগে জনসমর্থন পেতে মরিয়া চেষ্টা চালাচ্ছে রাজনৈতিক দলগুলি। এবারে বিজেপির স্টার প্রচারকদের মধ্যে অন্যতম হলেন মিঠুন চক্রবর্তী। বাংলার মহাগুরু এবারে বিজেপির হয়ে বিভিন্ন জায়গায় প্রচারে যাচ্ছেন, রোড শো করছেন। বাংলার এই তারকা ছেলেকে দেখতে রোড শো এবং জনসভাগুলিতে কাতারে কাতারে ভীড় জমাচ্ছেন মানুষজন।

এদিকে তৃণমূল‌ও পিছিয়ে নেই। তাদের‌ও স্টার প্রচারকদের তালিকায় রয়েছেন বেশ গুরুত্বপূর্ণ সেলিব্রিটিরা । তবে তাদের মধ্যে সবথেকে নজর কাড়ছেন মিঠুন চক্রবর্তী। তিনি নিজস্ব মেজাজেই বক্তৃতা রাখছেন জনসভা থেকে। বারবার তিনি বিদ্ধ করছেন তৃণমূলকে।পূর্ব বর্ধমানের রায়নার জনসভায় তৃণমূলের বিরুদ্ধে হুংকার ছেড়েছেন মিঠুন চক্রবর্তী।

আরও পড়ুন-“সিঙ্গুর নন্দীগ্রাম কাণ্ডে সিপিএমের কি হাল হয়েছিল আপনারা জানেন”- জনসভা থেকে হুঙ্কার অভিষেকের

তিনি বলেছেন, “মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন মানুষের দুয়ারে দুয়ারে রিশন পৌঁছে দেবেন, আমাদের বাংলায় ৬ কোটি মানুষকে রেশন পৌঁছে দিতে হলে, ৬ কোটি লোক দরকার। কত লোক কোথায় পাবেন, অর্থাৎ যতদিন রেশন বাড়িতে পৌঁছাবে না ততদিন মানুষ খাবে না। এটা একটা রাজনৈতিক প্ল্যান, এটা বিজনেস প্ল্যান, রাজনীতি হলো জনসেবা তা কখনোই বিজনেস এর পর্যায় পরেনা, মাসে ১ কোটি টাকা কামাই করার উদ্দেশ্যে এই দুয়ারে রেশন চালু করা হবে।

সাধারণ মানুষকে বলছি আপনারা ভিক্ষা নেবেন না, আপনারা নিজে দাঁড়িয়ে থেকে লাইন দিয়ে রেশন নেবেন। রেশনে মাল যদি ১ গ্রাম‌ও কম হয়ে থাকে তাহলে এই নম্বরে ফোন করবেন। সাথে সাথে এম‌এল‌এ ফাটাকেষ্টো আপনাদের সামনে হাজির হয়ে যাবে। বাংলায় ভালোই বিজনেস জুড়ে বসেছো, সবকটার পাখনা কাটা হবে।”