নিউজ

“প্রত্যেক থানা থেকে ২০ জন পুলিশকর্মীকে কেন ডেকেছে পুলিশ?”- ক্ষোভে সোচ্চার হলেন অনুব্রত

নিজস্ব প্রতিবেদন: আজ রয়েছে বীরভূমের মাটিতে অষ্টম দফার ভোট। প্রায়শই ভোটের আগে রাজনৈতিক উস্কানির সুরে মন্তব্য করেন বীরভূমের তৃণমূল নেতা অনুব্রত মণ্ডল । তাই আবার নির্বাচন কমিশনের নির্দেশেই নজরবন্দি হয়েছেন অনুব্রত মণ্ডল। ‌ অনুব্রত মণ্ডলের নজরদারিতে মোতায়েন থাকবেন কেন্দ্রীয় বাহিনীর জ‌ওয়ানরা।

গত ২৭ শে এপ্রিল বিকাল ৫ টা থেকে আগামী ৩০ শে এপ্রিল সকাল ৭ টা পর্যন্ত নিজের বাড়িতেই নজরবন্দী থাকবেন অনুব্রত মণ্ডল। এই শেষ দফার ভোটে যাতে কোনোরকম গন্ডগোল না হয়, তার জন্য অনুব্রত মন্ডলকে নজরবন্দি করা অত্যধিক শ্রেয় বলে মনে করছে নির্বাচন কমিশন। কিন্তু গতকাল কেন্দ্রীয় বাহিনীর সামনে দিয়ে গাড়ি নিয়ে বেরিয়ে গিয়েছিলেন অনুব্রত মণ্ডল। অনেক চেষ্টা করেও বহুক্ষণ তার নাগাল পায়নি কেন্দ্রীয় বাহিনী।

আরও পড়ুন-করোনা থেকে মুক্তি পেয়ে বাড়ি ফিরলেন ধোনির বাবা -মা

অনুব্রত মণ্ডল বলেছেন,”আমি কাল তারাপীঠে পূজো দিতে গিয়েছিলাম। আমি বেশ কয়েকটা জায়গায় ঘুরেছি। আমার কর্মীদের বলেছি যে সুস্থ্য এবং শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোট হোক। কোন রকম ঝামেলা অশান্তি যেন না হয়। ইলেকশন কমিশনের পুলিশ সেখান থেকে আমাদের ১০ থেকে ২০ জন কর্মীকে ডেকেছে। এটা কি জন্য ডাকা হয়েছে? বিজেপির কথাতে কেন ডাকা হচ্ছে? আর আমরা একশোটা দরখাস্ত দিয়েও সেগুলো গ্রাহ্য করছে না কমিশন।

তাদের অন্যায় কি ? আমরা যাদের সম্পর্কে অভিযোগ করছি তাদের কিছু বলছে না ইলেকশন কমিশনের পুলিশ ! আমাদের ভালো কর্মীদের থানায় ডেকে ঘন্টার পর ঘন্টা বসিয়ে রাখা হয়েছে। নানুরে বিজেপির লোকেরা বোম ফেলে রেখে দিয়েছে। বীরভূমের বুকে ১১ টা আসনেই শান্তিপূর্ণ ভোট হবে। আগামীকাল‌ও খেলা হবে। আমাদের অভিযোগ গুলো শুনছেই না কমিশন।”

Related Articles

Back to top button