নিউজপলিটিক্সরাজ্য

বিজেপির রাজ্য সভাপতির জায়গায় ‘বাংলার মেয়ে’ কেই চাইছে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব

নিজস্ব প্রতিবেদন: একুশের ভোটে তৃণমূলের অন্যতম স্লোগান ছিলো, ‘বাংলা নিজের মেয়েকেই চায়।’ এই স্লোগান তৃণমূলের জয়ে ব্যাপক প্রভাব ফেলেছিলো বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। এবার বিজেপিতেও ঠিক এরকমই হাওয়া উঠেছে। এবারে বিজেপিতেও রাজ্য সভাপতি পদে বাংলার মেয়েকে বসানোর দাবি জোরালো হচ্ছে।

এই বছরের ডিসেম্বরেই বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের মেয়াদ শেষ হতে চলেছে। দিলীপ ঘোষ রাজ্য সভাপতির পদে আসীন হয়েছিলেন ২০১৫ সালে। লোকসভা নির্বাচনের আগে বিজেপির সাংগঠনিক পরিবর্তন না হওয়ার দরুন রাজ্য সভাপতির কার্যকাল বৃদ্ধি করা হয়। এর পর পুনরায় দিলীপ ঘোষ বিজেপি রাজ্য সভাপতি নির্বাচিত হয়েছিলেন ২০২০ সালের জানুয়ারি তে।

আরও পড়ুন-নিজেদের গর বাঁচানোর জন্য দিলীপ ঘোষ সহ রাজ্যের পাঁচ সাধারণ সম্পাদককে নিয়ে বৈঠকে বসছেন শিবপ্রকাশ

দিলীপ ঘোষের কার্যকালের মেয়াদ ছিল ২০২৩ সালের জানুয়ারি পর্যন্ত। কিন্তু প্রটোকল অনুযায়ী বিজেপি রাজ্য সভাপতি ৬ বছর তাঁর পদে থাকতে পারেন। তাই এবার আগামী ডিসেম্বরে দিলীপ ঘোষের কার্যকাল সমাপ্ত হতে চলেছে। যার দরুন এবার বাংলার বিজেপির রাজ্য সভাপতি পদে নতুন মুখ উপস্থিত হতে চলেছে।

আরও পড়ুন-“বিজেপিতে যোগদান করেননি শিশির অধিকারী”- মন্তব্য দিলীপ ঘোষের।

জানা গিয়েছে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব এই রাজ্য সভাপতির আসনে বসাতে পারেন বাংলার কোন মহিলা নেত্রী কে। কিন্তু এখনো পর্যন্ত বাংলার কোন মেয়েকে এই পদে আসীন করা হবে সেই নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি। আপাতত সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, এই তালিকায় বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের পছন্দ দুইজনকে। প্রথমজন হলেন লকেট চট্টোপাধ্যায়, দ্বিতীয় হলেন দেবশ্রী চৌধুরী।

কিন্তু এখনো পর্যন্ত কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব স্পষ্ট ভাবে কিছু জানায়নি।

Related Articles

Back to top button