নিউজপলিটিক্স

নন্দীগ্রামে এগিয়ে কে ? শুভেন্দু না মমতা ? কি বলছে এক্সিট পোল?

নিজস্ব প্রতিবেদন: এবারে একুশের ভোটের অন্যতম হটস্পট ছিল সিঙ্গুর এবং নন্দীগ্রাম। কারণ এবারে এই দুটি বুথেই টানটান উত্তেজনা বিরাজ করেছে। সিঙ্গুরে তৃণমূলের প্রার্থী বেচারাম মান্নার বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েছেন সিঙ্গুরের প্রাক্তন তৃণমূল বিধায়ক রবীন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য। রবীন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য্য বিজেপির ছত্রছায়ায় চলে গিয়েছেন কয়েক মাস আগেই। নন্দীগ্রামেও বিজেপির প্রার্থী হয়ে দাঁড়িয়েছেন একদা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিশ্বস্ত সেনাপতি শুভেন্দু অধিকারী।

‌ তিনি লড়াই করেছেন খোদ তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে। ‌ রীতিমতো টানটান উত্তেজনা নন্দীগ্রামের বুকে। এদিকে নন্দীগ্রাম এবং সংযুক্ত মোর্চা প্রার্থী পদে আসীন করেছিলো বাম সংগঠনের অন্যতম জনপ্রিয় নেত্রী মীনাক্ষী মুখোপাধ্যায় কে। মীনাক্ষী ও যথেষ্ট আশাবাদী যে তিনি এবারে নন্দীগ্রামে মানুষের ভরসা জিতে নেবেন।

আরও পড়ুন-সিঙ্গুরে সম্ভাব্য জয়ী হতে চলেছেন মাস্টারমশাই রবীন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য। মত সমীক্ষায়

সিঙ্গুর এবং নন্দীগ্রামের জমি আন্দোলনকে কেন্দ্র করেই বাংলায় তৃণমূলের জয়যাত্রা সূচনা হয়েছিল এবং বাম দুর্গের পতন শুরু হয়েছিল। নন্দীগ্রামে তৃণমূল এর পাল্লা যথেষ্ট বাড়ি বলে মনে করছেন অনেক রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। ‌ আবার অনেকের মতই রীতিমতো হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হতে চলেছে নন্দীগ্রামের মাটিতে।বালিগঞ্জ কেন্দ্রে তৃণমূলের হেভিওয়েট নেতা সুব্রত মুখোপাধ্যায় কে এগিয়ে রেখেছে এক্সিট পোল, ভবানীপুরেও এগিয়ে রয়েছেন তৃণমূল নেতা শোভন দেব চট্টোপাধ্যায়।

এছাড়াও বেহালা পশ্চিম কেন্দ্রে বিজেপি প্রার্থী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায় কে পিছনে ফেলে দিতে পারেন তৃণমূল নেতা পার্থ চট্টোপাধ্যায়। ‌ কলকাতা বন্দরের জয়ী হতে চলেছেন মেয়র ফিরহাদ হাকিম এমনটাই বলছে এক্সিট পোল। ‌ কালীগঞ্জে বাবুল সুপ্রিয়র থেকে এগিয়ে রয়েছেন তৃণমূল প্রার্থী অরূপ বিশ্বাস। দমদম কেন্দ্রে জয় পেতে পারেন তৃণমূল প্রার্থী ব্রাত্য বসু।এদিকে এক্সিট পোল দাবি করেছে নন্দীগ্রামে যথেষ্ট হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয়েছে তৃণমূল এবং বিজেপির মধ্যে। কিন্তু তা সত্ত্বেও নন্দীগ্রামের সিট পেয়ে যাবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, এমনটাই বলছে সমীক্ষা।

Related Articles

Back to top button