নিউজপলিটিক্স

কোন দিকে এগোচ্ছে নন্দীগ্রামের মহা সংগ্রাম? মমতা বনাম বিজেপির লড়াইয়ে এগিয়ে রয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী!

নিজস্ব প্রতিবেদন:-অবশেষে বিগত কয়েক মাসের দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর আজ অপেক্ষাকৃত ২ রা মে চলে এসেছে।এমতাবস্থায় সব থেকে বড় খবর হিসেবে এই মুহূর্তে জানানো যাচ্ছে পশ্চিমবঙ্গের নির্বাচনে সবথেকে হাই ভোল্টেজ আসন নন্দীগ্রামে ভোট গণনার দিক থেকে এগিয়ে রয়েছেন বিজেপি প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারী। প্রসঙ্গত একদা তৃণমূলের এই দাপুটে নেতা হঠাৎ করেই গত বছর থেকে বিরোধী হয়ে উঠেছিলেন।

পরবর্তী সময়ে দলের সঙ্গে তার অন্তর্দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে চলে আসে।এমতাবস্থায় গত বছর ডিসেম্বর মাসে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতির উপস্থিতিতে পদ্মফুল শিবিরে যোগদান করেন শুভেন্দু। জানুয়ারি মাসের এক জনসভায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে নন্দীগ্রাম থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য আহ্বান করেন শুভেন্দু। একদা ছায়াসঙ্গী শুভেন্দুরএই আহ্বানকে ফিরিয়ে দিতে পারেননি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এরপরে প্রার্থী তালিকা ঘোষণা হওয়ার পর দেখা যায় নিজেকে নন্দীগ্রাম থেকে প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করেন মমতা।নন্দীগ্রাম থেকে প্রার্থী হিসেবে দাঁড়ানোর পর থেকেই এই অঞ্চলে উত্তেজনা ছড়িয়ে ছিল। কারণ নন্দীগ্রামে একজন মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে মমতা বন্দোপাধ্যায়ের যতটুকু প্রভাব রয়েছে; ঠিক তেমনভাবেই সাংগঠনিক ক্ষেত্রগুলিতে প্রভাব রয়েছে শুভেন্দু অধিকারীর। তাই আপাতদৃষ্টিতে কোন দলের প্রাধান্য বেশি থাকবে তা বলা মুশকিল ছিল।

আরও পড়ুন-ভোট গণনা শুরু হওয়ার পর কোন গণনা কেন্দ্রের পরিস্থিতি রয়েছে কেমন? জেনে নিন বিশদে!

এই পরিস্থিতিতে আজ ব্যালট গণনার পরপ্রথমে ১০৩টি কেন্দ্রের পরিসংখ্যান সামনে আসে। ওই ১০৩টি কেন্দ্রের মধ্যে ৫২টিতে এগিয়ে তৃণমূল, ৫০টিতে এগিয়ে বিজেপি। সংযুক্ত মোর্চা ১টি আসনে এগিয়ে। বেশ কয়েকটি আসনে জনপ্রিয় বিজেপির প্রার্থীরা এগিয়ে রয়েছেন। যেমন—যাদবপুর কেন্দ্রে বিজেপির প্রার্থী এগিয়ে রয়েছে।

রাজারহাট-গোপালপুর কেন্দ্র এবং রাসবিহারিতেও এগিয়ে রয়েছে বিজেপির প্রার্থী। নন্দীগ্রামে এগিয়ে বিজেপির প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারী।পরিসংখ্যান সামনে আসার পর প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে তবে কি নিজের ভূমি দখল করে রাখতে পারবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়?না সেই জমি অধিকার হয়ে যাবে ভারতীয় জনতা পার্টির।

Related Articles

Back to top button