নিউজপলিটিক্সরাজ্য

“কোল্ড চেইন প্রকল্পে উৎসাহ প্রদান করার জন্য কেন্দ্রীয় সরকার কি উদ্যোগ গ্রহণ করছে?”- প্রশ্ন করলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়

নিজস্ব প্রতিবেদন: কোল্ড চেইন প্রকল্পকে জনপ্রিয় করার জন্য কেন্দ্রীয় সরকার কি পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে? এই প্রশ্ন তুললেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। ‌ কৃষিপণ্যের অপচয় এবং উৎপাদিত ফসলের ক্ষয়ক্ষতি রোধ করতে যথেষ্ট সংখ্যক কোল্ড চেইন তৈরি করার পাশাপাশি কৃষি ক্ষেত্রে ব্যবহৃত জল এবং সারের মত দুটি অপরিহার্য জিনিসের অপচয় রোধ করার জন্য কেন্দ্রীয় সরকার কি কি পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে? গতকাল লোকসভায় কেন্দ্রীয় খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ মন্ত্রীকে এই দু’টি প্রশ্ন ছুড়ে দিয়েছেন তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

তিনি এই দুটি লিখিত প্রশ্ন করেছেন।এই প্রশ্নের উত্তরে কেন্দ্রীয় খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ মন্ত্রী প্রহ্লাদ সিং প্যাটেল‌ বলেছেন,”কৃষিজ ফসল কাটার পর তার ক্ষতি রোধ করতে এবং কৃষি উৎপাদন মূল্যের বৃদ্ধি করে খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ শিল্প মন্ত্রালয় দুটি প্রকল্প চালু করেছে। যথা- ভ্যালুয়েশন ইনফ্রাস্ট্রাকচার স্কিম এবং ইন্টিগ্রেটেড কোল্ড চেইন ব্যবস্থা । এই দুটি প্রকল্প প্রধানমন্ত্রী কিষান সম্মান যোজনা অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।

আরও পড়ুন-কিষান সম্মান নিধি নিয়ে সংঘাতের আবহে প্রধানমন্ত্রীর সাথে কথা বলতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

এখনো পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের জন্য এই পরিকল্পনার আওতায় মোট ৩৫৩ টি প্রকল্প গৃহীত হয়েছে।”প্রহ্লাদ সিং আরো বলেছেন, “গতবারের ২০১৭-২০১৮ সালের বাজেটে এই প্রকল্পে ১৮০ কোটি টাকা বরাদ্দ করার কথা বলা হয়েছিলো। ১৯-১৯ সালের বাজেটে এই প্রকল্পে বরাদ্দ করা হয়েছিলো ২৭১.৫৯ কোটি টাকা। তবে এই প্রকল্পে প্রকৃত খরচ হয়েছিলো ২৭১.১২ কোটি টাকা।

আরও পড়ুন-তাঁর বাড়িতে মধ্যহ্নভোজ সেরেছিলেন অমিত শাহ। কিন্তু কঠিন পরিস্থিতিতে ভ্যানচালকের পাশে দাঁড়ালো রাজ্য সরকার‌ই

২০২০-২১ সালে এই প্রকল্পে মোট খরচ করা হয়েছে ২০৭.৪০ কোটি টাকা। এবারের ২০২০-২০২১ সালে এই প্রকল্পে এখনো পর্যন্ত খরচ করা হয়েছে ৫৩.৪৫ কোটি টাকার মত। তবে প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের ফলে বেশ কিছু কৃষিজ ফসলের যথেষ্ট ক্ষয়ক্ষতি হয়ে গিয়েছে।”

Related Articles

Back to top button