“আইএস‌এফের সাথে আমাদের কোনো জোট নেই।”- ঘোষণা করে দিলেন অধীর চৌধুরী।

“আইএস‌এফের সাথে আমাদের কোনো জোট নেই।”- ঘোষণা করে দিলেন অধীর চৌধুরী।

নিজস্ব প্রতিবেদন: স্বাধীনতার পূর্ববর্তী সময়ে থেকে ভারতের মাটিতে দাপিয়ে রাজনীতি করে আসা কংগ্রেস খাতাই খুলতে পারেনি একুশের ভোটে। এমনকি কংগ্রেসের গড় মুর্শিদাবাদে রীতিমতো ধরাশায়ী কংগ্রেস। বামফ্রন্টের সাথে আইএস‌এফ এবং কংগ্রেসের মহাজোট বাংলায় কোনো প্রভাব বিস্তার করতে পারেনি। এর ফলে এই মহাজোটের বিরোধিতা করে সরব হয়েছে কংগ্রেস কর্মী সমর্থকরা।

‌ কেন্দ্রীয় কংগ্রেসের বেশ কয়েকজন নেতা এর দায় চাপিয়ে দিয়েছেন অধীর রঞ্জন চৌধুরীর উপরে। প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির নেতৃত্বে গত শনিবার প্রদেশ কংগ্রেসের প্রথম বৈঠক আয়োজিত হয়েছে কলকাতার মৌলালির প্রদেশ কংগ্রেসের সদরদপ্তর বিধান ভবনে। আসলে একুশের ভোটে মহাজোটের পর পরাজয় হলে দলীয় কর্মী সমর্থকদের মধ্যে ব্যাপক বিক্ষোভের সৃষ্টি হয়। সকলেই আইএস‌এফ এবং বামেদের সাথে জোট করার তীব্র সমালোচনা শুরু করেন।

আরও পড়ুন-অবশেষে তৃণমূলে যোগ দিলেন আলিপুরদুয়ারের বিজেপি সভাপতি গঙ্গাপ্রসাদ শর্মা।

আগেই বিজেপিকে রোখার জন্য বামফ্রন্টের সাথে জোট না করে তৃণমূলের সাথে জোট করার জন্য অধীর চৌধুরীকে পরামর্শ দিয়েছেন কংগ্রেসের এক কেন্দ্রীয় নেতা। একুশের ভোটে সংখ্যালঘু ভোটবাক্সের সিংহভাগ গিয়েছে মমতার সমর্থনে।এই আবহে আজ গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করেছেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর রঞ্জন চৌধুরী। তিনি বিজেপিকে আক্রমণ করে বলেছেন, “বাংলায় বিজেপি হার মেনে নিতে পারছে না তাই বাংলাকে ভাগ করার ষড়যন্ত্র করছে। ‌

আরও পড়ুন-রাজ্য পুলিশের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে বিজেপি। বৈঠক করলেন শুভেন্দু-প্রিয়াঙ্কা

বর্তমানে ভোটের আবহে বাংলাতেই রাজনৈতিক অশান্তি সব থেকে বেশি হচ্ছে।”জোট প্রসঙ্গে আজ বহরমপুরের এক সাংবাদিক বৈঠকে স্পষ্ট বার্তা দিয়েছেন অধীর চৌধুরী। তিনি বলেছেন, “মুর্শিদাবাদ জেলায় আইএসএফ আমাদের বিরুদ্ধে ভোটে প্রার্থী দাঁড় করিয়েছিল। তাই আইএসএফের সঙ্গে আমাদের কোনো রকম জোট আর আগামীদিনে থাকছে না।

আরও পড়ুন-শুভেন্দু অধিকারীকে আবার দিল্লিতে তলব করল বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্ব।

আমরা আগামী পুরভোটে সিপিএম কে সাথে নিয়ে জোট করে বিজেপি আর তৃণমূলের বিরুদ্ধে লড়াই চালাবো।”অর্থাৎ আইএস‌এফের সাথে কংগ্রেস যে আর জোটে নেই তা স্পষ্টত‌ই প্রমাণিত হল।এদিকে গতকালই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের যথেষ্ট স্তুতি করেছেন অধীর চৌধুরী।তবে তৃণমূলের সাথে তিনি কোনো রকম জোট করবেন কিনা সে ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করেননি তিনি।