উপরাষ্ট্রপতি ভেঙ্কাইয়া নাইডুর টুইটার থেকে ব্লু টিক সরিয়ে নিল টুইটার।

উপরাষ্ট্রপতি ভেঙ্কাইয়া নাইডুর টুইটার থেকে ব্লু টিক সরিয়ে নিল টুইটার।

নিজস্ব প্রতিবেদন: কয়েকদিন ধরেই ভারত সরকার সোশ্যাল মিডিয়ার উপরে বেশকিছু বিধিনিষেধ আরোপ করেছে। সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম গুলি তাদের সুরক্ষা ক্ষেত্রে আরো কড়াকড়ি ছারি করেছে। যার জন্য কোনোরকমের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে গন্ডগোল দেখলেই সেগ অ্যাকাউন্টের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম গুলি তাদের সুরক্ষা বিধি নিয়ে আরো সচেতন হচ্ছে।

এই পরিস্থিতিতে দেশের উপরাষ্ট্রপতি ভেঙ্কাইয়া নাইডুর ব্যক্তিগত টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে ব্লু টিক সরিয়ে নিল টুইটার অর্থাৎ তার অ্যাকাউন্ট ভেরিফাইড নয়।জানা গেছে গত ৬ মাস ধরে টুইটারে সক্রিয় নেই ভেঙ্কাইয়া নাইডু। তবে এটি তার ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্ট । তার অফিশিয়াল যে টুইটার পেজ রয়েছে তাতে ব্লু টিক দেওয়া রয়েছে।

আরও পড়ুন-ভোটের পরেই আবার ময়দানে নামছেন তৃণমূলের ভোট কুশলী প্রশান্ত কিশোর।

টুইটার জানিয়েছে যে সমস্ত ব্যক্তিরা যথেষ্ট প্রসিদ্ধ এবং সক্রিয় ভাবে তারা তাদের টুইটার অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করেন সেক্ষেত্রে তাদের এই টুইটার অ্যাকাউন্ট ভেরিফাইড বলে ব্লু টিক দেয় টুইটার। কিন্তু দীর্ঘদিন অ্যাকাউন্ট পরিচালনা না করলে এই ব্লু টিক সরিয়ে নেওয়া হয়। তখন তাদের এই অ্যাকাউন্ট আর ভেরিফায়েড থাকে না ।\

আরও পড়ুন-“এক আধজন চলে গেলে যেতেই পারেন।”- মুকুল ইস্যুতে দিলীপের মন্তব্য নিয়ে চাঞ্চল্য রাজ্য রাজনীতিতে।

তাই এক্ষেত্রে বলা হচ্ছে গত ছয় মাস যাবৎ উপরাষ্ট্রপতি ভেঙ্কাইয়া নাইডু তাঁর এই অ্যাকাউন্ট থেকে কোনোরকম টুইট করেননি। তাই টুইটার তাঁর অ্যাকাউন্ট নন ভেরিফায়েড করে দিয়েছে। এক্ষেত্রে টুইটার জানিয়েছে কোন ব্যক্তির ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্ট থেকে প্রয়োজন মনে করলে ব্লু টিক সরিয়ে নিতে পারে টুইটার। ‌ তবে শুধুমাত্র নিয়ম না মানা হলেই তবে ব্লু টিক সরিয়ে থাকে টুইটার।