চীনের সাথে যু’দ্ধ বাঁধলে ভারতের সঙ্গে থাকবে হাজার হাজার মার্কিন সেনা, স্পষ্ট বার্তা দিলো ট্রাম্প প্রশাসন!

শৌভিক বাগ:- লাদাখ সীমান্তে ক্রমাগত চোখ রাঙাচ্ছে চিন। আগ্রাসী মনোভাব থেকে কিছুতেই পিছু হটছে না চিন। এর মধ্যেই ভারতীয় এবং চিনা সেনাবাহিনীর মধ্যে হয়ে গেছে র-ক্ত-ক্ষয়ী সং-ঘ-র্ষ। মৃ’ত্যু হয়েছে বেশ কিছু ভারতীয় এবং চিনা সেনার। তবে তৈরি ভারত‌ও। চিনের মতোই ভারত‌ও চিন সীমান্তে মজুত করেছে যথেষ্ট পরিমাণে সেনা এবং অত্যাধুনিক অ-স্ত্রশ-স্ত্র

এছাড়াও সীমান্তে আকাশে চক্কর কাটছে ভারতীয় বায়ুসেনার অ্যাপাচে অ্যাটাক হেলিকপ্টার এবং অত্যাধুনিক সুখোই যু-দ্ধবিমান।সে-না ও বিমানবাহিনী ক্রমাগত শক্তি বাড়িয়ে চলেছে সী-মান্তে।ভারতীয় সেনাবাহিনীকে লাদাখে চিনা সেনার গতিবিধি সংক্রান্ত বহু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছে মার্কিন সেনা। উপগ্রহ চিত্রের অনেক কপি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র তুলে দিয়েছে ভারতের হাতে। এবার ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং টেলিফোনে কথা বলেছেন মার্কিন প্রতিরক্ষা সচিব মার্ক এসপারের সাথে।

আরও পড়ুন-বড় খবর- ব্যায়সঙ্কোচ কমাতে রেলে এবার বাতিল, করোনায় বড় ধা’ক্কা খেলো ভারতীয় রেল!

ভারতের এই মুহূর্তে কি কি সমরাস্ত্রের প্রয়োজন সেই তালিকা চেয়েছে আমেরিকা। আমেরিকা জানিয়েছে এই যু’দ্ধকালীন পরিস্থিতির মধ্যে ভারতের পাশে আছে আমেরিকা। যা প্রয়োজন তা তৎক্ষণাৎ পাঠানো হবে। এবার জানা গিয়েছে যে যু’দ্ধকালীন পরিস্থিতিতে ভারতকে অত্যাধুনিক ‘এক্সক্যালিবার’ দেওয়ার জন্য তৈরি আমেরিকা। এই অ’স্ত্রে’র গোলার পাল্লা হল ৪০ কিমি।

এই গোলা ভারতীয় সেনাবাহিনীতে ব্যবহৃত M77 ULTRA LIGHT হাউৎজার সহ বিভিন্ন কামানের সাথে অনায়াসে ব্যবহার করা যাবে। রাশিয়াও ভারতকে S 400 এয়ার ডিফেন্স সিস্টেম দিতে রাজি হয়েছে। ভারতের পাশে রয়েছে বলে জানিয়েছে রাশিয়া, ফ্রান্স, ইজরায়েল। রাশিয়া ভারতকে ১০০ কোটি মার্কিন ডলার মূল্যের যু’দ্ধা’স্ত্র জরুরী ভিত্তিতে দেওয়ার জন্য প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

রাশিয়া ভারতকে এই অ’স্ত্রস’ম্ভা’র হিসাবে দেবে ক্ষে’পণা’স্ত্র, যুদ্ধবিমান থেকে ছোঁড়া যায় এমন বম্ব, ম্যানপ্যাড এবং ট্যাঙ্ক ‘ধ্বং’স’কারী মি’সাই’ল। ইজরায়েল আগেই ঋণে বারাক-৮ এয়ার ডিফেন্স সিস্টেম দিয়েছে ভারতকে। এছাড়াও অত্যাধুনিক অ্যারো, আয়রন ডোম, ডেভিডস স্লিং ভারতকে ইজরায়েল দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। এবার আমেরিকার চিফ অফ স্টাফ জানিয়েছেন যে, তাঁরা চিনকে কখনোই দাদাগিরি করতে দেবেননা।

আরও পড়ুন- হাওড়া শিয়ালদা শাখায় শুরু হচ্ছে ট্রেন চলাচল,, কোন সময়ে কোন ট্রেন চলবে?

আমেরিকান নৌ সেনারা ইতিমধ্যেই চিনকে চাপে রাখতে দক্ষিণ চিন সাগরে দুটি বিমানবাহী র’ণত’রী মোতায়েন করে রেখেছে। আমেরিকা প্রথম থেকেই অভিযোগ করে আসছে যে করোনা যখন চিনে প্রথম ছড়াতে থাকে তখন এর স’ত’র্ক’তা হিসাবে বিশ্বকে কোনো তথ্য‌ই দেয়নি চিন। এর ফল ভোগ করতে হচ্ছে আজ বিশ্ববাসীকে।

এবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প টুইট করে জানিয়েছেন যে, ‘চিনের কারণেই আমেরিকা তথা গোটা বিশ্বের প্রচুর ক্ষতি হয়ে চলেছে।” হোয়াইট হাউস স্পষ্টত‌ই জানিয়েছে যে, ভারত-চিন যু’দ্ধ বাধলে হাজার হাজার মার্কিন সেনা ভারতের পক্ষ নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়বে চিনের বিরুদ্ধে। চিনকে কোনোভাবেই এশিয়ায় র’ক্তচ’ক্ষু দেখাতে দেওয়া যাবেনা।

এখানে আপনার মতামত জানান