নিউজরেসিপি

এই শীতের মরসুমে গোপন পদ্ধতিতে বাড়িতেই বানান গরম গরম কড়াইশুঁটির কচুরি, রইলো পদ্ধতি!

নিজস্ব প্রতিবেদন:-আমাদের মধ্যে অনেকেই ভোজন রসিক হয় । অর্থাৎ তাদের খাবার অত্যন্ত প্রিয় হয় । রাস্তাঘাটে যেকোনো জায়গায় বেরোলে যে জিনিসটি তারা ভুলে না সেটি হলে খাবার । এই সেই সমস্ত খাবার বা ভোজন রসিক মানুষদের জন্য একটি সুসংবাদ । কারণ আজকের এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে আমি এমন এক ধরনের রেসিপি আপনাদের সামনে নিয়ে এসেছি যা অন্যান্য বাকি সমস্ত রান্নার স্বাদ কে টেক্কা দেবে ।

আপনি নিশ্চয়ই ভাবছেন যে আমি এই মুহূর্তে কোন খাবার রান্নার কথা বলতে চলেছি? জানাবো আপনাদের বিস্তারিত ।ছোট অনুষ্ঠান বাড়ি হোক বা বাড়ির খাবারের পরিবেশন করতে পারেন মিলবে অনেকখানি প্রশংসা । সময় খুব কম লাগে তার পাশাপাশি খুব অল্প ব্যয় করা সম্ভব । তাই এরপর থেকে জলখাবার জনিত কোন সমস্যা থাকলে এটি আপনি বাড়িতে তৈরি করে পরিবেশন করতে পারেন অনায়াসে ।আমি এই মুহূর্তে যে রেসিপির কথা বলতে চলেছি সেটি বিয়েবাড়িতে কমবেশি ব্যবহার হয়ে থাকে । তাই এটি বাড়িতে আপনি চেষ্টা করলে বিফলে যাবেন না ।

তার পাশাপাশি এখন যেহেতু শীতকাল পড়ে গেছে তাই রিফ্রেশমেন্ট বলতে মানুষ শুধুমাত্র পিকনিক বোঝে এখন । তাই আপনি পিকনিকে করতে পারেন এই রেসিপিটি । মিলবে অনেকখানি প্রশংসা । এই মুহূর্তে বলতে চলেছি কড়াইশুঁটির কচুরির কথা। যেটি কমবেশি প্রত্যেকের খেতে ভীষণ ভালবাসে । তাই এবার থেকে জল খাবার জনিত কোন সমস্যা বা রাত্রে খাবার জনিত কোন সমস্যা হলে বাড়িতে পরিবেশন করুন । গরম গরম কড়াইশুঁটির কচুরি তাছাড়া শীতের আমেজে প্রায় প্রতিটি বাড়িতেই একবার না একবার কড়াইশুঁটির কচুরি হয়ে থাকে কিন্তু সঠিক উপায়ে হয়তো অনেকেই জানেন না ।

আরও পড়ুন-ডিমটা এভাবে ভেজে নিলে ভাতের সাথে আর অন্য কিছু লাগবে না, খেতে হয় দারুন টেস্টি, রইলো পদ্ধতি!

যার ফলে তার ভেতর এর পুর বাইরে বেরিয়ে আসে । কিন্তু আজকের এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে জানাবো কিভাবে সঠিকভাবে কড়াইশুঁটির কচুরি করতে হয় আসুন দেখেনি প্রক্রিয়া গুলি কি কি ।উপকরণ হিসেবে লাগবে মটরশুঁটি ৫০০ গ্রাম, ময়দা ২কাপ, গোটা মৌরি সামান্য, আদাবাটা ১ চামচ, ২ টো কাঁচালঙ্কা বাটা, রোস্টেড জিরে গুঁড়ো ১/২ চামচ, ঘি ১ চামচ, লঙ্কার গুঁড়ো ১/২ চামচ, হলুদ গুঁড়ো ১ চামচ এর ৪ ভাগের ১ ভাগ, নুন পরিমাণ মতো, চিনি ১ চামচ এর ৪ ভাগের ১ ভাগ আর লাগছে ডুবো তেলে কচুরি ভাজবার জন্য সাদা তেল।

প্রথমে মটরশুঁটি ছাড়িয়ে বেটে নিতে হবে।এরপর ময়দা মাখাতে হবে, তাই ময়দা তে দিতে হবে ঘি, আর পরিমান মতো নুন। মাখা ময়দা ঢাকা দিয়ে রেখে দিতে হবে ১৫ মিনিট। এরপর বানিয়ে নিতে হবে কচুরির পুর। প্যান গরম করে তেল দিতে হবে। তেলের মধ্যে দিয়ে দিতে হবে মৌরি, আদা বাটা আর কাঁচালঙ্কা বাটা। তেলে মিশিয়ে নিয়ে ওর মধ্যে এক এক করে দিতে হবে মটর শুঁটি বাটা, হলুদ গুঁড়ো, লঙ্কা গুঁড়ো, চিনি, জিরে গুঁড়ো আর নুন। সব উপকরণ তেলে ভেজে নিতে হবে।

এটা বানাতে বেশি সময় লাগবেনা, মটর শুঁটির জল শুকিয়ে গিয়ে শুকনো শুকনো হলেই পুর তৈরি। কচুরি বানানোর জন্য মাখা ময়দা থেকে অল্প অল্প নিয়ে লেচি কেটে নিতে হবে। এরপর একটা লেচি নিয়ে প্রথমে গোল করে পুর দেওয়ার জন্য গর্ত করতে হবে। গর্তের মধ্যে সামান্য তেল বুলিয়ে নিয়ে মটর শুঁটির পুর দিয়ে দিতে হবে। এবার এটা মুড়ে আবার গোল করে নিতে হবে যাতে ভেতরের পুর বেড়িয়ে না আসে।

এরপর তেলে ডুবিয়ে নিয়ে লুচির আকারে বেলে নিতে হবে। তবে বেশি চাপ দিয়ে না বেলে হালকা চাপে বেলতে হবে যাতে ভেতরের পুর বেরিয়ে না আসে। এই ভাবে সব কচুরি বেলে নিতে হবে।ডুবো তেলে কচুরি ভাজবার জন্য তেল গরম হতে দিতে হবে। ভালোভাবে তেল গরম হলে একটা কচুরি দিয়ে দিতে হবে। সব কটা কচুরি ভেজে নিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন আলুর দমের সাথে কড়াই শুঁটির কচুরি ।

 

Related Articles

Back to top button