নিউজপলিটিক্সরাজ্য

এবার ত্রিপুরা জয়ের লক্ষ্যে এক নতুন স্লোগান তৈরি করলো রাজ্য তৃণমূল কংগ্রেস

নিজস্ব প্রতিবেদন: গত শনিবার থেকে ত্রিপুরার পরিস্থিতি সম্পূর্ণ পাল্টে গিয়েছে। ত্রিপুরার মাটিতে যথেষ্ট চাঞ্চল্যকর পরিবেশের সৃষ্টি হয়েছে। ত্রিপুরার মাটিতে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের গাড়িতে আঘাত করার অভিযোগ উঠেছে বিজেপি কর্মী সমর্থকদের বিরুদ্ধে। এরপরেই গত শনিবার তৃণমূলের যুব নেতা দেবাংশু ভট্টাচার্য সহ সুদীপ রাহা, জয়া দত্ত এবং আরো তৃণমূল কর্মী সমর্থকদের ওপর হামলা করার অভিযোগ উঠেছে বিজেপির বিরুদ্ধে।

এরপরে অবস্থান বিক্ষোভ প্রদর্শন করতে গেলে দেবাংশু ভট্টাচার্য্য সহ ১৪ জন তৃণমূল নেতা-নেত্রীদের গ্রেফতার করেছিল ত্রিপুরা পুলিশ। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় সহ ব্রাত্য বসু , কুনাল ঘোষ প্রভৃতি তৃণমূলের হেভিওয়েট নেতারা ত্রিপুরার খোয়াই থানায় উপস্থিত হয়ে রীতিমতো বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েছিলেন পুলিশকর্তাদের সাথে। তারপরেই চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে ৫০ হাজার টাকার ব্যক্তিগত বন্ডে জামিন পেয়েছেন দেবাংশু রা। কলকাতায় প্রত্যাবর্তন করেছেন তারা। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে রাজ্য রাজনীতি যথেষ্ট উত্তপ্ত হয়ে রয়েছে।

আরও পড়ুন-সংসদে ত্রিপুরা নিয়ে তৃণমূলের সাথে বিক্ষোভ দেখালেন সুনীল মন্ডল। সুর নরম তৃণমূলের

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আগেই ঘোষণা করেছেন যে বাংলা ছাড়িয়ে এবার তৃণমূল সর্ব ভারতীয় রাজনীতিতে আত্মপ্রকাশ করবে। যার প্রথম লক্ষ্য হলো আগামী ২০২৩ এর ত্রিপুরা বিধানসভা নির্বাচন। এই নির্বাচনে বিপ্লব দেবের বিজেপি সরকারকে সরিয়ে ত্রিপুরার মাটিতে জোড়া ফুল প্রস্ফুটিত করার লক্ষ্যে বদ্ধপরিকর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ত্রিপুরার মাটিতে এর আগেও গিয়েছিলেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

তৃণমূলকে সর্বভারতীয় স্তরে পৌঁছে দেওয়ার দায়িত্বভার তাঁর কাঁধে অর্পণ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী।বাংলায় বিজেপির হেভিওয়েট নেতাদের একাই রুখে নিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যার দরুণ সারাদেশে তার রাজনৈতিক গুরুত্ব বহুলাংশে বৃদ্ধি পেয়েছে। বাংলায় তৃণমূলের জনপ্রিয় স্লোগান ছিল ‘খেলা হবে’ যা প্রতিটি মানুষের মুখে মুখে ফিরেছে একুশের ভোটে।

আরও পড়ুন-“ভুল হলে বলবেন নিজেকে শুধরে নেব, আপনারা কেউ ভুল বুঝবেন না”- ঝাড়গ্রামে বার্তা দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

এই স্লোগানটি বাংলা ছাড়িয়ে রাজ্যের বাইরেও মানুষের মুখে মুখে ছড়িয়ে পড়েছে।এবার ঠিক এরকমই একটি স্লোগান, ত্রিপুরার মাটিতে ঝড় তোলার জন্য তৈরী করে ফেলেছে জোড়া ফুল শিবির। আগামী ২০২৩ এর ত্রিপুরা বিধানসভা নির্বাচনে নিজেদের জয়ধ্বজা উড়িয়ে দিতে এই স্লোগানের উপর ভরসা করছে ঘাসফুল শিবির।কয়েকদিন আগে দিল্লি গিয়ে বিজেপি বিরোধী তাবড় তাবড় নেতা নেত্রীদের সাথে বৈঠক সম্পন্ন করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

দেশের বহু বিজেপি বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে মোদী বিরোধী প্রধান মুখ বলে আখ্যায়িত করেছেন। তাই এবার বিজেপি সরকারকে ত্রিপুরার মাটি থেকে উচ্ছেদ করার জন্য রীতিমত কোমর বেঁধে লড়াইয়ে আসীন হয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। এই লক্ষ্যে তৃণমূলের এবারে নতুন স্লোগান -‘জিতবে ত্রিপুরা।’আগামী ২০২৩ এর ত্রিপুরা বিধানসভা ভোটে তৃণমূলের জয়জয়কার হয় কিনা সেটাই দেখার বিষয়।

Related Articles

Back to top button