এবার অনুব্রত মন্ডলকে শোকজ করলো নির্বাচন কমিশন

এবার অনুব্রত মন্ডলকে শোকজ করলো নির্বাচন কমিশন

নিজস্ব প্রতিবেদন: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শীতলকুচির ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে সরাসরি দায় চাপিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক থেকে শুরু করে নির্বাচন কমিশন এবং কেন্দ্রীয় বাহিনীর উপরে। ‌ তিনি অভিযোগ করে বলেছেন যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের নির্দেশে কাজ করছে নির্বাচন কমিশন এবং কেন্দ্রীয় বাহিনী। ‌ তার এই মন্তব্যকে সম্পূর্ণ নির্বাচনী বিধির বিরোধী বলে ২৪ ঘন্টা মুখ্যমন্ত্রীর জনসভা তথা নির্বাচনী কর্মসূচি বাতিল করে দিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

এদিকে রাহুল সিনহার সমস্ত রাজনৈতিক কর্মসূচি আগামী ৪৮ ঘন্টার জন্য বাতিল করে দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। দিলীপ ঘোষকেও নোটিশ পাঠিয়েছে কমিশন। নন্দীগ্রামের বিজেপির প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারী কেও সতর্ক করেছে নির্বাচন কমিশন। গত ৯ ই এপ্রিল শুভেন্দু অধিকারীকে নোটিশ পাঠায় কমিশন।এবার তৃণমূলের দোর্দন্ডপ্রতাপ নেতা বীরভূমের অনুব্রত মণ্ডল কে শোকজ নোটিশ পাঠিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

আরও পড়ুন-বর্ধমানের তৃণমূলের পার্টি অফিস ভাঙচুর। প্রবল চাঞ্চল্য এলাকায়

গতকাল রাত এগারোটার মধ্যে তাঁকে নিজের বক্তব্য পেশ করতে নির্দেশ দিয়েছে কমিশন। অনুব্রত মণ্ডলের বিজেপি কে ঠেঙিয়ে পগার পার করে দেবো এবং খেলা হবে , এই দুটি স্লোগানের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিয়েছে নির্বাচন কমিশন। এই দুটি মন্তব্যের বিরুদ্ধে আগেই অভিযোগ করা হয়েছিল নির্বাচন কমিশনে। অভিযোগ খতিয়ে দেখে তার পরই অনুব্রত বাবু কে নোটিশ পাঠিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

এই প্রসঙ্গে অনুব্রত মণ্ডল বলেছেন, “খেলা হবে বলেই কিছু তো ভুল বলিনি, নরেন্দ্র মোদী জে পি নাড্ডা, দিলীপ ঘোষ এনারা সবাই তো বলছেন খেলা হবে। কথাটার মধ্যে খারাপ কি আছে? নির্বাচন কমিশন বুঝতে পারেনি, যে পগার পার করে দেবো কথাটার মানে কি! আমি ভালোভাবে বুঝিয়ে বলবো। আমরা ফুটবল দিচ্ছি, ক্রিকেট ব্যাট দিচ্ছি, এগুলো তো খেলাই।”