নিউজপলিটিক্সরাজ্য

বিজেপির মহিলা মোর্চার কর্মসূচি ঘিরে ব্যাপক ধুন্ধুমার কলকাতার ভবানী ভবন, সিমলা স্ট্রিটে।

নিজস্ব প্রতিবেদন: একের পর এক উত্তপ্ত পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়ে চলেছে রাজ্যের মাটিতে। তৃণমূল কংগ্রেস আগামী ১৬ ই আগস্ট রাজ্যজুড়ে খেলা হবে দিবস পালন করতে চলেছে। এই আবহে বিজেপিও নানান কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। ইতিমধ্যেই রাজ্যের মাটিতে বেশ কিছু জায়গায় বিজেপির নেতা কর্মীরা গতকাল রাজ্যজুড়ে হিংসাত্মক পরিস্থিতি এবং নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে আন্দোলন করেছে।

শালতোড়ার বিজেপি বিধায়ক চন্দনা বাউড়ি কর্মী সমর্থকদের নিয়ে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন। এদিকে কলকাতায় বিজেপির মহিলা মোর্চার আইন অমান্য কর্মসূচি ঘিরে যথেষ্ট ধুন্ধুমার পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। গতকাল আইন অমান্য কর্মসূচি পালন করতে গিয়ে ভবানী ভবন এর সামনে থেকে গ্রেপ্তার হয়েছেন বিজেপি মহিলা মোর্চার রাজ্য সভানেত্রী অগ্নিমিত্রা পল।

জানা গিয়েছে স্বামী বিবেকানন্দের বাড়ির সামনে ব্যাপক বিক্ষোভ দেখিয়েছে বিজেপির মহিলা মোর্চার কর্মীসমর্থকরা। ‌ বিক্ষোভ প্রশমিত করতে ব্যাপক সংখ্যায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছিল ওই অঞ্চলে। যথেষ্ট সংখ্যায় মহিলা পুলিশ উপস্থিত ছিলেন। মহিলা পুলিশ বিজেপি মহিলা মোর্চার প্রায় ২০ জন কর্মী-সমর্থকদের গ্রেপ্তার করে লালবাজারে নিয়ে গিয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

আরও পড়ুন –“আমার পছন্দ না হলে আপনার ছবি সার্টিফিকেটে কেন নেবো?”- টীকা শংসাপত্রে প্রধানমন্ত্রীর ছবি প্রসঙ্গে তোপ দাগলেন মুখ্যমন্ত্রী

এই ঘটনায় দফায় দফায় উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে সমগ্র কলকাতা। জানা গেছে গতকাল বাগনান গণধর্ষণকাণ্ডের প্রতিবাদস্বরূপ সারা রাজ্যে আইন অমান্য কর্মসূচি পালন করেছে বিজেপি মহিলা মোর্চা। এছাড়াও রাজ্যের মাটিতে ভোট-পরবর্তী হিংসাত্মক পরিস্থিতি, ধর্ষণ কাণ্ডের মতো বেশ কিছু পরিস্থিতির পরিপ্রেক্ষিতে বিক্ষোভ দেখিয়েছে বিজেপির মহিলা মোর্চা। ‌

সিমলা স্ট্রিটে বিজেপি মহিলা মোর্চার আইন অমান্য কর্মসূচি পালন করতে গিয়ে পুলিশের সাথে ব্যাপক ধস্তাধস্তি শুরু করে দিয়েছিলেন। সেখানেই বিজেপি নেত্রী মীনাদেবী পুরোহিতকে গ্রেফতার করে কলকাতা পুলিশ। গ্রেফতার হ‌ওয়া বিজেপি কর্মী, নেত্রীদের বিরুদ্ধে করোনা বিধি লঙ্ঘন করা, যানবাহন চলাচলে বাধা দেওয়ার অভিযোগ দায়ের করেছে কলকাতা পুলিশ।

কলকাতা ব্যাতীত চুঁচুড়া, সোনারপুর, মেদিনীপুরেও বিজেপি মহিলা মোর্চার এবং অন্যান্য বিজেপি কর্মীরাও ব্যাপক বিক্ষোভ দেখিয়েছে। এই প্রসঙ্গে অগ্নিমিত্রা পল বলেছেন, “পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী নিজে একজন মহিলা, সেখানে নারী সুরক্ষার হাল বিপর্যস্ত হয়েছে। তৃণমূল সিপিএমের মতোই ধর্ষণকে রাজনৈতিক হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে।”

Related Articles

Back to top button