নিউজআন্তর্জাতিকটেক নিউজ

পাকিস্তানের উপর একদমই ভরসা নেই । কাঁধে বন্দুক নিয়ে কাজে নিমগ্ন চিনা ইঞ্জিনিয়াররা

নিজস্ব প্রতিবেদন: পাকিস্তান ! এই দেশটার কথা ভারতীয়দের সামনে উপস্থিত হলেই ভারতীয়দের চোখের সামনে এসে উপস্থিত হয় সন্ত্রাসবাদের ভয়াবহ প্রতিচ্ছবি। আসলে পাকিস্তানের দিক থেকে খারাপ ব্যাতীত কল্যাণকর কোনো কিছু ভারতীয়রা আজ পর্যন্ত পায়নি। যত‌ই পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলুক না কেন যে পাকিস্তান বর্তমানে সন্ত্রাসবাদকে প্রশ্রয় দেয়না, কিন্তু প্রকৃতপক্ষে সন্ত্রাসবাদের আঁতুড়ঘর হল পাকিস্তান। ভারতের মাটি বারবার রক্তাক্ত হয়েছে পাকিস্তানের হামলায়।

তবে প্রত্যেক বার পাকিস্তানকে সমুচিত জবাব দিয়েছে ভারত। কিন্তু শুধু ভারতেই নয়, যে পাকিস্তানকে মাথায় তুলে রেখেছে সেই চিনকেও ছেড়ে কথা বলেনি পাকিস্তানের জঙ্গীরা। চিনা ইঞ্জিনিয়াররা পাকিস্তানের মধ্যে বড়ো একটি প্রোজেক্টে কাজ করছে। সেই চিনা ইঞ্জিনিয়ারদের বাসে হামলা চালিয়ে বেশ কয়েকজন ইঞ্জিনিয়ারকে মেরে ফেলেছে পাক জেহাদী জঙ্গীরা।

আরও পড়ুন-আফগানিস্তানে তালিবানরা হত্যা করল পুলিৎজার পুরস্কার প্রাপ্ত ভারতীয় চিত্র সাংবাদিককে।

চীন কয়েক কোটি টাকা খরচ করে স্পেশাল সিকিউরিটি ডিভিশন মোতায়েন করেছিল পাকিস্তানে। যাদের মূল উদ্দেশ্য ছিল পাকিস্তানে কর্মরত চিনা ইঞ্জিনিয়ার এবং অন্যান্য কর্মচারীদের সুরক্ষা প্রদান করা। এছাড়াও পাকিস্তান নিরাপত্তারক্ষীরাও চীনা নাগরিকদের সুরক্ষা প্রদানের দায়িত্ব গ্রহণ করেছে। কিন্তু এত নিরাপত্তা সত্বেও চিনা ইঞ্জিনিয়ার ভর্তি বাসে হামলা চালিয়েছিল জঙ্গিরা যার দরুন ৯ জন চীনা নাগরিকের মৃত্যু হয়েছিল।

আরও পড়ুন-চীনকে উচিৎ শিক্ষা দিতে দ্রব্য আমদানি বন্ধ করতে চলেছে আমেরিকা।

যার জন্য এবার নিরাপত্তায় পাকিস্তানের উপর ভরসা রাখতে পারছে না চিন।এই আবহে একটি ছবি ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। এই ছবিটিতে দেখা গিয়েছে পাকিস্তানে কাঁধে একে ৪৭ স্বয়ংক্রিয় রাইফেল নিয়ে একমনে কাজ করে‌ চলেছে চিনা ইঞ্জিনিয়াররা। তারা পাকিস্তানের নিরাপত্তা রক্ষীদের উপর ভরসা করতে পারছে না বলে নিজেরাই বন্দুক কাঁধে তুলে নিয়েছে।

আর তাদের এই বন্দুক দিয়েছে আফগানিস্তানের হক্কানি জঙ্গি সংগঠন। এই ছবিটি সামনে আসতেই আন্তর্জাতিক মহলে পাকিস্তানের নিরাপত্তার বিশাল ব্যর্থতার বিষয়টি উন্মোচিত হয়েছে।

Related Articles

Back to top button