কেন্দ্রীয় সরকারের প্রবল আপত্তিতে করোনার নতুন ভারতীয় ভেরিয়েন্টের নাম পাল্টে দিলো বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

কেন্দ্রীয় সরকারের প্রবল আপত্তিতে করোনার নতুন ভারতীয় ভেরিয়েন্টের নাম পাল্টে দিলো বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

নিজস্ব প্রতিবেদন: সারা ভারতজুড়ে ভয়াবহ সন্ত্রাস চালাচ্ছে করোনার এই মহামারি। এই মহামারির কবলে পরে প্রাণ যাচ্ছে একের পর এক মানুষের। এবার জানা গিয়েছে আরেকটি চাঞ্চল্যকর খবর। ভিয়েতনামের বেশিরভাগ এলাকায় মিলেছে এক হাইব্রিড করোনার স্ট্রেইনের হদিশ। ভিয়েতনামের বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন যে এই হাইব্রিড ভেরিয়েন্ট হলো ভারত এবং ব্রিটেন এর করোনার স্ট্রেইনের হাব্রিড ভেরিয়েন্ট।

তারা জানিয়েছেন যে ভিয়েতনামের বেশিরভাগ এলাকায় এই নতুন ভেরিয়েন্ট এর সংক্রমণ অতি দ্রুত ছড়িয়ে পড়েছে। ভারত এবং ব্রিটেন এর সংমিশ্রণে এই ভেরিয়েন্ট অতি দ্রুত বাতাসে ছড়িয়ে পড়তে সক্ষম এবং অত্যন্ত সংক্রামক বটে। চলতি সপ্তাহের প্রারম্ভেই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছিলো ভারতের করোনার বি.১.৬১৭ ভেরিয়েন্টের আরো তিনটি উপ প্রজাতি বর্তমান। যেমন, বি১৬১৭.১, বি১৬১৭২.২, বি১৬১৭.৩

আরও পড়ুন-করোনার দৈনিক সংক্রমণের মধ্যে রেকর্ড পতন। আশায় বুক বাঁধছেন তামাম ভারতীয়রা।

ভারতে প্রথমবার পাওয়া গিয়েছিলো বি১৬১৭ স্ট্রেইন। এই স্ট্রেইনকে বারবার ডাকা হচ্ছিলো ভারতীয় স্ট্রেইন হিসাবে। এতে প্রবল আপত্তি জানায় ভারত। অবশেষে ভারতের অনুরোধ মেনে নিয়ে ভারতীয় করোনার স্ট্রেইন বি১৬১৭ এর নাম রাখা হল ডেল্টা ভেরিয়েন্ট। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে যে, এবার থেকে করোনার এই ভেরিয়েন্ট গুলিকে দেশের নাম অনুযায়ী ডাকা হবে না। এছাড়াও বি১৬১৭.১ ভেরিয়েন্টের নাম রাখা হয়েছে কাপ্পা ভেরিয়েন্ট।