নিউজ

সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!

সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!
সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!
সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!
সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!
সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!
সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!
সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!
সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!

নিজস্ব প্রতিবেদন:- প্রতিবছরই ছুটির ফাঁকে বঙ্গবাসীর জন্য একটি অন্যতম পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে ধরা দিয়েছে দীঘা। সম্প্রতি বড়দিনেও এখানে ব্যাপক পর্যটকের ঢল নামতে চলেছে। তাই পরিস্থিতির উপর নিয়ন্ত্রণ রাখতে সমুদ্রসৈকতে অতিরিক্ত পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে, পাশাপাশি ড্রোনের সাহায্যেও নজরদারি চালানো হচ্ছে।

সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!
সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!
সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!
সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!

যাতে কোন রকম ভাবেই পর্যটকদের অসুবিধার মুখোমুখি হতে না হয় এবং তাদের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত থাকে তার সমস্ত রকম ব্যবস্থা করেছে প্রশাসন। পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে ওল্ড দীঘার বিশ্ববাংলা উদ্যানকে ঢেলে সাজানো হয়েছে। পাশাপাশি নিউ দিঘাতে হেলিপ্যাড ময়দানকে পিকনিকের জন্য নির্দিষ্ট করে দেওয়া হয়েছে।

সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!
সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!
সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!
সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!

দীঘার এক হোটেল মালিকের কথায়,”15 দিন আগে থেকেই আমাদের রুম বুক হয়ে গিয়েছে। বড়দিনে আশা করছি আমাদের ব্যবসা যথেষ্ট ভাল ভাবেই হবে”।জানিয়ে রাখি দীঘার পর্যটন ক্ষেত্রকে আরও উন্নত করার জন্য ঢেলে সাজানোর উদ্যোগ নিয়েছে রাজ্য সরকার। দিন কয়েক আগেই পুরীর জগন্নাথ মন্দিরের আদলে দীঘায় একটি জগন্নাথ মন্দির তৈরীর কথা ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!
সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!
সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!
সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!

প্রসঙ্গত রাজ্যের পর্যটন কেন্দ্র গু-লির মধ্যে দীঘা অন্যতম। তাই এই সমুদ্র সৈকতকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য তৎপর হয়েছে প্রশাসন এবং রাজ্য সরকার। বড়দিন হোক কিংবা অন্যান্য কোন উৎসব বেশিরভাগ মানুষই দীঘার সমুদ্র সৈকতে ছুটি উপভোগের জন্য পাড়ি জমিয়ে থাকেন।

সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!
সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!
সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!
সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!
সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!
সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!
সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!
সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!
সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!
সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!
সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!
সিসিটিভি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হলো গোটা দিঘা সমুদ্র সৈকত! আকাশে 24 ঘন্টা উড়বে ড্রোন!

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button