মুখ্যমন্ত্রী মমতার উদ্দেশ্যে কটু কথা বলার প্রতিবাদ করায় মারধর করা হল তৃণমূল নেতাকে। গ্রেফতার অভিযুক্ত।

মুখ্যমন্ত্রী মমতার উদ্দেশ্যে কটু কথা বলার প্রতিবাদ করায় মারধর করা হল তৃণমূল নেতাকে। গ্রেফতার অভিযুক্ত।

নিজস্ব প্রতিবেদন: একেই সারা রাজ্য জুড়ে করোনার ভয়াবহ সন্ত্রাস চলছে। প্রতিমুহূর্তে মানুষ মৃত্যু ভয়ে তটস্থ হয়ে রয়েছেন। কিন্তু এই পরিস্থিতিতেও হিংসা হানাহানি অব্যাহত রয়েছে মানুষের মধ্যে।একটি চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটেছে বালুরঘাট শহরের চকভৃগু অঞ্চলে । জানা গিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস এবং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সম্পর্কে কথা বলার প্রতিবাদ করে মারধর করা হয়েছে তৃণমূল নেতা কনক চৌধুরীকে। অভিযুক্ত দেবজ্যোতি চৌধুরী হলেন কনক চৌধুরীর দাদা।

অভিযুক্ত দেবজ্যোতি চৌধুরী নিজে একজন স্কুলশিক্ষক। অভিযোগকারী কনক চৌধুরী বালুরঘাট ১৫ নম্বর ওয়ার্ডের বুথ সভাপতি। দাদা দেবজ্যোতির সাথে তাঁর পারিবারিক অশান্তি রয়েছে দীর্ঘদিন ধরেই। গতকাল সন্ধ্যায় তাঁদের অশান্তি চরম আকার ধারণ করে। কনক চৌধুরী অভিযোগ করেছেন যে, “দীর্ঘদিন ধরেই আমাদের মধ্যে বনিবনা নেই। সন্ধ্যায় অশান্তি তুঙ্গে ওঠে। তখনই তৃণমূল কংগ্রেস এবং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সম্পর্কে আজেবাজে মন্তব্য করতে শুরু করে দাদা।

আরও পড়ুন-“গতবছর আমফানে যে গাছ কাটা হল , সেগুলো কোথায় গেলো?”- মুখ্যসচিবের কাছে রিপোর্ট তলব মুখ্যমন্ত্রীর

তারপরেই আমি সোজা থানায় অভিযোগ জানায়।“জানা গিয়েছে থানায় অভিযোগ জানানোর পর পুলিশ গিয়েছিল অভিযুক্তের বাড়ি। কিন্তু বাইরে দীর্ঘক্ষন পুলিশ অপেক্ষা করলেও কিছুতেই বেরিয়ে আসেন নি অভিযুক্ত দেবজ্যোতি চৌধুরী এবং তার পরিবারের সদস্যরা। দরজা দিয়ে ভীতরেই ছিলেন তারা। তার পরে পুলিশ সটান দরজা ভেঙে ভীতরে ঢোকে এবং অভিযুক্ত দেবজ্যোতি চৌধুরীকে আটক করে। তাঁকে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।