“এখন ট্রেন বন্ধ হচ্ছে না।”- আশ্বস্ত করে বললেন রেলমন্ত্রী

“এখন ট্রেন বন্ধ হচ্ছে না।”- আশ্বস্ত করে বললেন রেলমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদন: দেশের মানুষ করোনার প্রথম পর্যায়ে যথেষ্ট কঠিন বাস্তবের মুখোমুখি হয়েছিল। নরক যন্ত্রণা ভোগ করেছিলেন বহু মানুষ। বেশ কয়েকজন পরিযায়ী শ্রমিকরা সুদূর রাজ্যে তার মাতৃভূমিতে ফিরতে গিয়ে প্রাণ খুইয়েছেন। প্রথম পর্যায়ের ধাক্কা সামলে উঠতে না উঠতেই আবার সজোরে আঘাত হেনেছে করোনার দ্বিতীয় পর্যায়ের সন্ত্রাস। গত মাসের তুলনায় এই মাসে প্রায় ২৭ গুণ বৃদ্ধি পেয়েছে এই মহামারি ।

দেশের মাটিতে এখনো পর্যন্ত মোট করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১ কোটি ৫৬ লক্ষ ৯ হাজার ৪ জন জন। মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েছেন ১ লক্ষ ৮২ হাজার ৫৭০ জন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১ কোটি ৩২ লক্ষ ৬৯ হাজার ৮৬৩ জন। সারা দেশের মধ্যে ভয়াবহ পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছে এই করোনাভাইরাস।এমতাবস্থায় আবার সাময়িক লকডাউন জারি করেছে মহারাষ্ট্র, দিল্লি। সারা দেশের মধ্যে আবার লকডাউন হতে পারে এই আশঙ্কা করে বহু পরিশ্রমিক পরিবার নিয়ে ফিরে আসছেন নিজেদের মাতৃভূমিতে।

আরও পড়ুন-ফের মানবিক সোনু সুদ; দুঃস্থ শিশুর অপারেশনে সাহায্য করে সংবাদ শিরোনামে এলেন অভিনেতা।

প্রায় আতঙ্ক কে সঙ্গী করে আবার ট্রেনে ভিড় ভাট্টার মধ্য দিয়ে ঘরে ফেরার চেষ্টা করছেন অনেকেই। ‌ স্টেশন থেকে শুরু করে বাস টার্মিনালগুলোতে ঠাসাঠাসি ভিড়। আর এই ভিড়ের মধ্যে বাড়ছে করোনার আতঙ্ক। এমনিতেই বাস কর্মী এবং রেল কর্মীদের মধ্যে সংক্রমণ যথেষ্ট বৃদ্ধি পেয়েছে। যার ফলে অদূর ভবিষ্যতে রেল পরিষেবা কিভাবে সুষ্ঠুভাবে চালানো যায় তার উপরে প্রশ্ন চিহ্ন উঠে গিয়েছে । আগামী দিনে যাতে রেল পরিষেবা অব্যাহত থাকে সে বিষয়ে যথেষ্ট প্রচেষ্টা চালাচ্ছে রেল।এইসময় রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল

একটি ভার্চুয়াল প্রেস কনফারেন্সে বলেছেন, “এখন সারাদেশে রেল পরিষেবা বন্ধ করার কোন প্রশ্ন নেই। আমি সমস্ত পরিস্থিতি দেখছি, রেলের আধিকারিকরা সমস্ত পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছে। ‌ বেশ কয়েকটি স্পেশাল ট্রেন চালানো হচ্ছে। অযথা আতঙ্কিত হবেন না। ‌ সারাদেশব্যাপী ট্রেন পরিষেবা যথেষ্ঠ স্বাভাবিক রয়েছে।”রেলমন্ত্রীর এই বক্তব্যের পরেও এখনো আতঙ্ক কাটছে না মানুষ জনের মধ্যে।