নিউজআবহাওয়া

৬ ই মে পর্যন্ত একটানা চলবে ঝড়-বৃষ্টি । সংকেত আবহাওয়া দপ্তরের।

নিজস্ব প্রতিবেদন: একদিকে করোনা সন্ত্রাস চালাচ্ছে পশ্চিমবঙ্গ তথা ভারতের বুকে, অপরদিকে বাংলায় দিনের পর দিন বাড়ছে তাপমাত্রা। এককথায় সারা বাংলা জুড়ে একটা অস্বস্তিকর পরিস্থিতি বিরাজ করছে। ‌ রোদের দাপট বৃদ্ধি পেয়েছে যথেষ্ট। রীতিমত যেন দগ্ধ হয়ে যাচ্ছেন মানুষজন । তাপমাত্রার পারদ বাড়ছে চড়চড়িয়ে। দেখা নেই বৃষ্টির। এক পশলা বৃষ্টির আশায় হাপিত্যেশ করে বসে আছেন বঙ্গবাসী।

দিনের পর দিন একদিকে করোনার মৃত্যুভয় অন্যদিকে অসহ্য গরম এই দুইয়ের মাঝে যাঁতাকলে পিষ্ট হচ্ছেন মানুষজন। এরই মধ্যে স্বস্তি জনক সংকেত দিয়েছিলো আবহাওয়া দপ্তর। জানিয়েছিলো বাংলায় আর দু দিন পরেই নামতে চলেছে অঝোর ধারায় বৃষ্টি।সেইমতো গতকাল‌ই দক্ষিণবঙ্গের বেশ কয়েকটি রাজ্যে স্বস্তির বৃষ্টি দেখা দিয়েছে ।

আরও পড়ুন-৬ ঘন্টা ধরে ফ্ল্যাটেই বন্দী করোনা রোগীর মৃতদেহ। দরজা ভেঙে উদ্ধার করলো পুলিশ।

আজ শনিবার কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকতে চলেছে ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস এর কাছাকাছি এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকতে চলেছে ২৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি। আজ সকালের দিকে বেশ কিছু জায়গায় আংশিক রৌদ্রোজ্জ্বল আকাশ থাকবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস। জানা গিয়েছে আগামীকাল ২ রা মে উত্তর এবং দক্ষিণে বেশকিছু জেলায় প্রবল ঝড় বৃষ্টি হতে চলেছে। টানা ৫ থেকে ৬ দিন এই ঝড়বৃষ্টি জারি থাকবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর।

উত্তরবঙ্গের বেশকিছু জেলায় বজ্রবিদ্যুৎ সহ ঝড় বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। ‌ কোচবিহার, আলিপুরদুয়ার, দার্জিলিং, কালিম্পং, জলপাইগুড়িতে প্রবল ঝড় বৃষ্টি নামতে পারে। সেই সাথে দক্ষিণবঙ্গের নদিয়া, মুর্শিদাবাদ, উত্তর ২৪ পরগনা, হুগলি, বাঁকুড়ায় প্রবল ঝড় বৃষ্টির দেখা মিলতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর। আপাতত এই কয়েকদিন ভয়াবহ গরম থেকে কিছুটা স্বস্তি পাবেন রাজ্যবাসী।

Related Articles

Back to top button