নিউজপলিটিক্সরাজ্য

বাজেট অধিবেশনের ভাষণ চূড়ান্ত বলে জানাল রাজ্য। এদিকে বিবেচনার আশ্বাস দিয়ে ধোঁয়াশা বৃদ্ধি করলেন রাজ্যপাল।

নিজস্ব প্রতিবেদন: গতকাল বৃহস্পতিবার বাজেট অধিবেশনে রাজ্যপালের ভাষণ চূড়ান্ত করেছে রাজ্যের মন্ত্রীসভা। মন্ত্রিসভার তৈরি করা ভাষণ বাজেট অধিবেশনে রাজ্যপাল পাঠ করেন বহুদিন থেকে এটাই রীতি হয়ে আসছে। এই ভাষণটি চূড়ান্ত হয়ে গিয়েছে। ‌ রাজভবনে এই ভাষণ পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

ভাষণের প্রথম এই বিপুল পরিমাণে জয়লাভ করার মধ্য দিয়ে তৃণমূলের তৃতীয় বার ক্ষমতায় আসীন হওয়ার কথা লেখা রয়েছে। এছাড়াও এই ভাষণে উল্লেখ করা হয়েছে যে ভোট পরবর্তী সময়ে রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি কোনভাবেই পর্যুদস্ত হয়নি। তবে এই ভাষণ রাজভবনে পাঠানোর পরেই রাজভবন সূত্রে জানানো হয়েছে যে,রাজ্যপাল নির্দিষ্ট সময় ধরে রাজ্য সরকারের পাঠানো বক্তিতা পড়ে তার সাংবিধানিক এবং অন্যান্য নিরিখে ঠিকঠাক রয়েছে কিনা সেটি পর্যবেক্ষণ করতে চান। এছাড়াও রাজ্যপাল চেয়েছেন যে সংবাদমাধ্যম তাঁর বক্তৃতার সরাসরি সম্প্রচার করুক।

আরও পড়ুন-মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখের বাড়িতে তল্লাশি চালালো এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট

তবে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা অনুমান করছেন যে রাজ্যে তৈরি এই ভাষণ রাজ্যপাল কতটা গুরুত্ব সহকারে নেবেন সেটা বলাই বাহুল্য। ‌ এমনিতেই বহুত আগে থেকেই রাজ্যের সাথে রাজ্যপালের সংঘাতের বিষয়টি সকলের জানা। তাই এই পরিস্থিতিতে রাজ্যপাল যদি নিজের কোনো বক্তব্য রাজ্য সরকারের এই ভাষণের সাথে জুড়ে দেন তাহলে বিতর্ক ছাড়া আর কিছু উৎপত্তি হবে না। সম্প্রতি এরকম বিতর্ক ঘটিয়েছেন কেরল বিধানসভার রাজ্যপাল।

আরও পড়ুন-“জল পড়ে পাতা নড়ে, পাগলা হাতির মাথা নাড়ে‌”- আবার রাজ্যপালকে কটাক্ষ করলেন মদন মিত্র

রাজভবন সূত্রে জানা গিয়েছে বিধানসভার গত বাজেট অধিবেশনে রাজ্যপালের বক্তৃতা সরাসরি সম্প্রচারিত হয় নি। তাই এবারে রাজ্যপাল চাইছেন তাঁর বক্তব্যের সরাসরি সম্প্রচার করা হোক।এক্ষেত্রে রাজ্য সরকার জানিয়েছে যে সংবাদমাধ্যমের ক্যামেরার জন্য রাজ্যপালের ভাষণ স্থানে যথেষ্ট পরিমাণে স্থান পাওয়া যাবে কিনা তা বিধানসভার স্পিকার পর্যবেক্ষণ করে দেখবেন। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন,”আগামী ২ রা জুলাই বিধানসভায় বাজেট অধিবেশন শুরু হতে চলেছে।

‌আগামী ৭ ই জুলাই বিধানসভার বাজেট পেশ করা হবে। ‌ এই বাজেট পেশ এবারে করতে পারেন পরিষদীয় মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র শারীরিক অসুস্থতার জন্য বাজেট ভাষণ পড়তে পারবেন না।”

Related Articles

Back to top button