নিউজঅফবিটবাজার দর

পেট্রোল-ডিজেলের দাম কমাতে আসরে নামল চিন্তিত রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া

নিজস্ব প্রতিবেদন: ক্রমাগত বৃদ্ধি পেয়েছে পেট্রোল ডিজেলের দর। বেশকিছু রাজ্যে ইতিমধ্যেই পেট্রোলের লিটার প্রতি মূল্য ১০০ পার হয়ে গিয়েছে। পেট্রোল ডিজেলের উপর গত ২০১৪ সালে যে কর বসাত কেন্দ্রীয় সরকার তার ১০০% ই রাজ্য এবং কেন্দ্রের মধ্যে ভাগ বাটোয়ারা হত। কিন্তু বর্তমানে বিজেপি সরকার যে কর আদায় করছে পেট্রোল ডিজেলের উপরে, সেই করের প্রায় ৯৫% ই তারা ঝুলিতে পুরছে।

বিজেপি সরকার পেট্রোল ডিজেলের উপরে সেস-সারচার্জ চাপিয়ে দিয়েছে, যার দরুণ রাজ্যের সাথে এই তেলের কর তাদের ভাগ বাটোয়ারা করার দরকার পড়ে না।ইতিমধ্যেই দেশের বিরোধী দলগুলি রান্নার গ্যাস, পেট্রোল-ডিজেলের অতিরিক্ত মূল্য বৃদ্ধির জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে সরব হয়েছে। বাংলায় বিধানসভা ভোটের সময় ও তৃণমূল এই পেট্রোল-ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধির পরিপ্রেক্ষিতে কেন্দ্রীয় সরকারকে দায়ী করেছে। যার প্রভাব ভোটে পড়েছে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

আরও পড়ুন-শীঘ্রই কমবে খাদ্য সামগ্রী সহ অন্যান্য সমস্ত জিনিস পত্রের দাম। আশ্বাস দিলো কেন্দ্রীয় সরকার।

বেশকিছু কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বলেছেন যে পেট্রোল-ডিজেলের দাম ১০০ র গন্ডী ছাড়িয়ে গিয়েছে যা সাধারণ মানুষের মধ্যে যথেষ্ট অসন্তোষের সৃষ্টি হয়েছে। উপদেষ্টা সংস্থা ইউক্রা জানিয়েছে লকডাউন যখন মিটবে, তখন পেট্রোল-ডিজেলের বিক্রি বৃদ্ধি পাবে যার ফলে তখন কর আদায়ের পরিমাণ বাড়বে। এই প্রসঙ্গে কেন্দ্রীয় পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান বলেছেন, “বিশ্ববাজারে অপরিশোধিত তেলের দাম যথেষ্ট বৃদ্ধি পেয়েছে। এই পেট্রোলিয়াম থেকে যে কর আদায় করা হচ্ছে তা করোনা মোকাবিলায় কাজে লাগানো হচ্ছে।”

আরও পড়ুন-বাজারে আসতে চলেছে জিওর নতুন ফোন। জেনে নিন খুঁটিনাটি।

অবশেষে এই পরিস্থিতির মধ্যেই পেট্রোল ডিজেলের দর কমানোর জন্য আসরে নেমেছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া। কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে তারা আর্জি জানিয়েছে যাতে পেট্রোল-ডিজেলের করের বোঝা কম করা যায়। গত ৪ ঠা জুন আরবিআইয়ের ঋণনীতি কমিটি পেট্রোল-ডিজেলের কর কমানোর আর্জি জানিয়েছে। ‌ রিজার্ভ ব্যাংক জানিয়েছে যে পেট্রোল-ডিজেলের অতিরিক্ত কর বসানোর ফলে পাইকারি এবং খুচরা বাজারে মূল্য বৃদ্ধির হার আশঙ্কাজনকভাবে বেড়ে গিয়েছে।

এই মূল্যবৃদ্ধি রিজার্ভ ব্যাঙ্কের লক্ষ্যমাত্রা কে ছাড়িয়ে চলে গিয়েছে। তাই এবার রিজার্ভ ব্যাঙ্ক কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে দরবার করতে শুরু করেছে পেট্রোপণ্যের উপর কর কমানোর জন্য।

Related Articles

Back to top button