নিউজটেক নিউজদেশপলিটিক্স

জম্মু-কাশ্মীরের সমস্ত রাজনৈতিক দলের সাথে আজ বৈঠক করবেন প্রধানমন্ত্রী।

নিজস্ব প্রতিবেদন: প্রাচ্যের ভূস্বর্গ বলে খ্যাত জম্মু-কাশ্মীর। এই রাজ্যের প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের টানে দেশ-বিদেশ থেকে বহু মানুষের আগমন ঘটে এখানে। জম্মু-কাশ্মীরের নৈসর্গিক সৌন্দর্য অনন্য। কিন্তু এই রাজ্য ভারতের মধ্যে সবথেকে অশান্ত রাজ্য ।

প্রায়শই জঙ্গি হানায় রক্তাক্ত হয় এই রাজ্যের মাটি। প্রায়শ‌ই সেনা-জঙ্গি সংঘর্ষের কথা শোনা যায় জম্মু-কাশ্মীরের বুকে।বর্তমানে জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা প্রত্যাহার করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। আজ জম্মু-কাশ্মীরের ভবিষ্যৎ নির্ণয় করার জন্য জম্মু-কাশ্মীরের সমস্ত রাজনৈতিক নেতাদের সাথে বৈঠকে বসতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

আরও পড়ুন-“এখন লোকাল ট্রেন চালালে দুনিয়ার লোকের করোনা হবে”- যাত্রী বিক্ষোভ প্রসঙ্গে বললেন মুখ্যমন্ত্রী।

দুপুর তিনটে থেকে এই বৈঠক শুরু হ‌ওয়ার কথা।প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে বৈঠক শুরু হবে বলে জানা গিয়েছে। জম্মু-কাশ্মীরের প্রতিটি রাজনৈতিক দলের নেতা নেত্রীরা এই বৈঠকে অংশগ্রহণ করবেন। ‌ জম্মু-কাশ্মীরে রাষ্ট্রপতি শাসনের অবসান ঘটিয়ে জম্মু-কাশ্মীর কে আবার রাজ্যের মর্যাদা দেওয়া এবং জম্মু-কাশ্মীরের নির্বাচন, উপত্যাকায় শান্তি প্রতিষ্ঠা, এবং বিভিন্ন উন্নয়ন প্রসঙ্গে এই বৈঠকে আলোচনা হতে চলেছে বলে সূত্রের খবর।

আরও পড়ুন-“দয়া করে কৃষি এবং গণতন্ত্র রক্ষা করুন।”- রাষ্ট্রপতিকে স্মারকলিপি পাঠাতে চলেছেন বিক্ষুব্ধ কৃষকরা।

এই বৈঠকের আগে জম্মু-কাশ্মীরের বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা-নেত্রীরা নিজেদের মধ্যে একাধিকবার বৈঠক করেছেন। আজকের বৈঠকে উপস্থিত থাকতে চলেছেন জম্মু-কাশ্মীরের নেতা ফারুক আব্দুল্লাহ, মেহবুবা মুফতি সহ আরো অনেকেই। কংগ্রেসের নেতারাও এই বৈঠকে যোগ দেওয়ার দাবি জানিয়েছিলেন। এই বৈঠকে প্রধানত জম্মু-কাশ্মীরের ৩৭০ ধারা বজায় রাখার জোরালো দাবি তুলতে চলেছে রাজনৈতিক দল গুলি এমনটাই সুত্রের খবর।

আরও পড়ুন-একশো দিনের কাজে আবার মিললো সাফল্য। ৪০ দিনে কর্মদিবস বেড়েছে প্রায় দশ গুণ

কেন্দ্রীয় সরকার দাবি করেছে জম্মু-কাশ্মীরের মাটিতে বর্তমানে অনেকটাই কমেছে অশান্তির আবহ। কিন্তু ৩৭০ ধারা তুলে দেওয়ার পরে বারবার বিক্ষোভ দেখিয়েছেন জম্মু কাশ্মীরের বহু মানুষ। তাই এবার উক্ত বৈঠক আয়োজন করা হয়েছে।

Related Articles

Back to top button