“বাংলার অক্সিজেন সাপ্লাই চেন উত্তরপ্রদেশে নিয়ে চলে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী।”- বাংলায় অক্সিজেনের সংকট নিয়ে কেন্দ্রকে বিঁধলেন মুখ্যমন্ত্রী।

“বাংলার অক্সিজেন সাপ্লাই চেন উত্তরপ্রদেশে নিয়ে চলে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী।”- বাংলায় অক্সিজেনের সংকট নিয়ে কেন্দ্রকে বিঁধলেন মুখ্যমন্ত্রী।

নিজস্ব প্রতিবেদন: সারা ভারত জুড়ে প্রবল সন্ত্রাস চালাচ্ছে করোনা ভাইরাস। এই ভাইরাসের দ্বিতীয় পর্যায় প্রথম পর্যায়ের থেকে আরও বেশি মারাত্মক এবং ভয়াবহ। এখনো পর্যন্ত সারা ভারত জুড়ে আক্রান্ত হয়েছেন ১ কোটি ৬৬ লক্ষ ২ হাজার ৪৫৬ জন। মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ৮৯ হাজার ৫৪৯ জনের। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১ কোটি ৩৮ লক্ষ ৬২ হাজার ১১৯ জন। পশ্চিমবঙ্গের অবস্থাও যথেষ্ট ভয়াবহ। পশ্চিমবঙ্গের বুকে এখনো পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৭ লক্ষ ১৩ হাজার ৭৮০ জন।

মারা গিয়েছেন ১০ হাজার ৮২৫ জন। সুস্থ হয়েছেন ৬ লক্ষ ২৮ হাজার ২১৮ জন। দিনদিন মারাত্মক আকার ধারণ করছে এই ভাইরাস। এই আবহে রাজ্যে অক্সিজেনের যোগান যথেষ্ট কমে গিয়েছে, সেই সাথে কমেছে ভ্যাকসিনের পরিমাণ‌ও। এই পরিস্থিতিতে সরাসরি কেন্দ্রীয় সরকারের উপর দায় চাপিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেছেন,”কেন্দ্রীয় সরকারের এটা ব্যর্থতা। বিজেপি সরকারের একটাই উদ্দেশ্য যেকোনো মূল্যে বাংলাকে দখল করতে হবে।

আরও পড়ুন-“নির্বাচনে জয়লাভ করে মাথা নত করে বাংলার ভূমি ছুঁয়ে প্রণাম করব”- ভার্চুয়াল জনসভা থেকে প্রতিশ্রুতি দিলেন প্রধানমন্ত্রী।

বাংলার ক্ষমতা যেমন করেই হোক দখল করতে হবে। বাংলাকে দখল করার নাম করে বিজেপি বাংলাকে কোভিডের সঙ্কটে ফেলে দিয়েছে। ফ্রি ভ্যাকসিনের প্রায় ৬০% পেয়েছে গুজরাট। আর আমরা পেয়েছি মাত্র ১০% থেকে ১৫%। বাজারে অক্সিজেন নেই, পর্যাপ্ত ওষুধ নেই। ইন্ডাস্ট্রিয়াল অক্সিজেন আমরা নিজেরাই নিয়ে নিয়েছি। আমাদের হাতে এখন ২০ হাজার সিলিন্ডার রয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকার বাংলাকে ভাতে মারতে চায়।

বাংলা থেকে অক্সিজেন নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকার বাইরের রাজ্যে পাঠিয়ে দিচ্ছে। মানুষের জন্য ২০ হাজার কোটি টাকার খরচ করতে পারছে না কেন্দ্রীয় সরকার। এদিকে দেশে ভ্যাকসিন নেই, আবার ৬৫% ভ্যাকসিন বিদেশে পাঠিয়ে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। আমাদের বাংলার অক্সিজেন চেইনটাকে নিয়ে উত্তরপ্রদেশে চলে যাচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার।”