বুথের মধ্যেই জয় শ্রীরাম স্লোগান দিলেন পোলিং অফিসার

বুথের মধ্যেই জয় শ্রীরাম স্লোগান দিলেন পোলিং অফিসার

নিজস্ব প্রতিবেদন: আজ রাজ্যজুড়ে ষষ্ঠ দফার নির্বাচন শুরু হয়েছে । চারটি জেলার মোট ৪৩ টি আসনে সম্পন্ন হচ্ছে ভোটগ্রহণ। জানা গিয়েছে উত্তর ২৪ পরগনা, পূর্ব বর্ধমান, উত্তর দিনাজপুর, এবং নদীয়া কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ হবে। এই ৪ টি জেলার এক তৃতীয়াংশের‌ও বুথ অত্যন্ত স্পর্শকাতর বলে জানা গিয়েছে।এদিকে আজ সকাল থেকেই ষষ্ঠ দফার নির্বাচনকে ঘিরে যথেষ্ট অশান্তির সূত্রপাত ঘটেছে।

ব্যারাকপুরে তৃণমূল প্রার্থী রাজ চক্রবর্তীকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখিয়েছে বিজেপি কর্মী সমর্থকরা। তাকে ঘিরে জয় শ্রীরাম, এবং গো ব্যাক স্লোগান দিয়েছে বিজেপি কর্মীরা। এদিকে গলসির মনোহর সুজাপুর গ্রামে তৃণমূল কর্মীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে যে তারা ভোটারদের ভোট দিতে দিচ্ছেনা। ‌ বিশাল কেন্দ্রীয় বাহিনী ওই এলাকায় গিয়েছে। ‌ বীজপুরে এক বিজেপি কর্মীর বাড়িতে ভাঙচুর চালানোর অভিযোগ উঠেছে তৃণমূল কর্মীদের বিরুদ্ধে। ‌

আরও পড়ুন-ব্যারাকপুরের তৃণমূল প্রার্থী রাজ চক্রবর্তী কে ঘিরে গো ব্যাক স্লোগান বিজেপি কর্মী সমর্থকদের।

অভিযোগ উঠেছে যে বিজেপি কর্মীর বৃদ্ধা মাকেও বেধড়ক মারধর করেছে তৃণমূল সমর্থকরা। এছাড়াও পূর্ব বর্ধমানের কেতুগ্রামে তৃণমূলের বিরুদ্ধে মারধরের অভিযোগ এনেছে বিজেপির কর্মী-সমর্থকেরা। ‌ ওই এলাকায় পুলিশকে ইট ছোঁড়ার অভিযোগ উঠেছে । আমডাঙায় রংমহল বুথের ২০০ মিটার দূরে উদ্ধার করা হয়েছে বেশ কয়েকটি তাজা বোমা। বিভিন্ন জায়গা থেকে ঝামেলা অশান্তির বিক্ষিপ্ত ঘটনার খবর মিলছে।

এখনো পর্যন্ত জানা গিয়েছে সকাল ৯ টা পর্যন্ত ১৭.১৯% ভোট পড়েছে।জানা গিয়েছে পূর্বস্থলীতে ঘটে গিয়েছে এক চাঞ্চল্যকর ঘটনা। ‌ যে পোলিং অফিসার রা বুথের ভোট গ্রহণের দায়িত্বে রয়েছেন, সেই পোলিং অফিসারদের মধ্যে তৃতীয় পোলিং অফিসার পূর্বস্থলীর বুথের মধ্যেই ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগান দিতে থাকেন। সাথে সাথেই ওই বুথে প্রবল উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। ‌ খবর পাওয়ার সাথে সাথেই অভিযুক্ত তৃতীয় পোলিং অফিসার কে বুথ থেকে সরিয়ে দেয় নির্বাচন কমিশন। এই ঘটনাকে ঘিরে প্রবল চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে এলাকায়।