নিউজদেশপলিটিক্স

জম্মু কাশ্মীর নিয়ে বৈঠক শেষ। কি প্রতিক্রিয়া দিলেন জম্মু-কাশ্মীরের নেতারা?

নিজস্ব প্রতিবেদন: বর্তমানে জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা প্রত্যাহার করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। গতকাল জম্মু-কাশ্মীরের ভবিষ্যৎ নির্ণয় করার জন্য জম্মু-কাশ্মীরের সমস্ত রাজনৈতিক নেতাদের সাথে বৈঠক করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। দুপুর তিনটে থেকে এই বৈঠক শুরু হ‌য়েছিলো।প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে বৈঠক শুরু হয়েছিলো বলে জানা গিয়েছে।

জম্মু-কাশ্মীরের প্রতিটি রাজনৈতিক দলের নেতা নেত্রীরা এই বৈঠকে অংশগ্রহণ করেছেন। জম্মু-কাশ্মীরে রাষ্ট্রপতি শাসনের অবসান ঘটিয়ে জম্মু-কাশ্মীরকে আবার রাজ্যের মর্যাদা দেওয়া এবং জম্মু-কাশ্মীরের নির্বাচন, উপত্যাকায় শান্তি প্রতিষ্ঠা, এবং বিভিন্ন উন্নয়ন প্রসঙ্গে এই বৈঠকে আলোচনা হয়েছে বলে সূত্রের খবর।এই বৈঠকের আগে জম্মু-কাশ্মীরের বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা-নেত্রীরা নিজেদের মধ্যে একাধিকবার বৈঠক করেছেন। এই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন জম্মু-কাশ্মীরের নেতা ফারুক আব্দুল্লাহ, মেহবুবা মুফতি, গোলাম নবী আজাদ সহ আরো অনেকেই।

আরও পড়ুন-“বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কাছ থেকে কোভ্যাকসিনের অনুমোদন পাইয়ে দিন”- প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দিয়ে অনুরোধ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে এই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, অজিত ডোভাল প্রমুখেরা।এই বৈঠক সম্পন্ন হয়েছে দীর্ঘ সাড়ে তিন ঘণ্টা ধরে । প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের পর কংগ্রেসের প্রাক্তন রাজ্যসভার সাংসদ গুলাম নবি আজাদ বলেছেন, “আমরা চাই খুব তাড়াতাড়িই যেন কাশ্মীর আবার আগের মতোই পূর্ণ রাজ্যের মর্যাদা ফিরে পায়। শীঘ্রই যেন কাশ্মীরে নির্বাচন সম্পন্ন হয়।

আরও পড়ুন-কেএমসির মধ্যে কিভাবে প্রভাব বিস্তার করেছিলো ভুয়ো আইএএস দেবাঞ্জন? ঘনীভূত হচ্ছে রহস্য।

রোজগার সংক্রান্ত বহু বছর ধরে চলে আসা আইন কানুন যেন বজায় থাকে। কাশ্মীরী পণ্ডিতদের পুনর্বাসন যেন শীঘ্রই হয়।”জম্মু-কাশ্মীরের বিজেপি নেতা রবীন্দ্র সাইনা বলেছেন, “আজকের বৈঠকটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ছিল। ‌ অত্যন্ত ভালো ভাবেই বৈঠক সম্পন্ন হয়েছে।”

Related Articles

Back to top button