নিউজটেক নিউজপলিটিক্সরাজ্য

১জুলাই পর্যন্ত ফের বাড়লো লকডাউনের মেয়াদ, বন্ধ থাকবে বাস-ট্রেন, খোলা থাকবে অফিস-শপিংমল!

নিজস্ব প্রতিবেদন: রাজ্যে ক্রমেই বেড়ে চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। তবে গত কয়েকদিন ধরেই সংক্রমণে যথেষ্ট রাশ টানা সম্ভব হয়েছে। রাজ্যে জারি রয়েছে বেশ কিছু বিধিনিষেধ। তবে লকডাউনের মতো পরিস্থিতি বলবৎ করা হয়নি।

বেশ কিছু ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়া রয়েছে। অর্থাৎ পুরো লকডাউন চালু করা হয়নি। লোকাল ট্রেন বন্ধ রাখা হয়েছে। কিন্তু পূর্ব রেল রাজ্যকে চিঠি দিয়ে জানিয়েছে যে রাজ্যের অনুমতি থাকলে তারা এখন‌ই লোকাল ট্রেন পরিষেবা চালু করতে পারে।

আরও পড়ুন-“করোনার চিকিৎসা সরঞ্জাম এর উপর থেকে জিএসটি তোলার আবেদন কানে তোলেনি কেন্দ্র”- কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সুর চড়ালেন অমিত মিত্র।

কিন্তু রাজ্য এই অনুমতি দেয়নি। আগামীকাল পর্যন্ত এই বিধিনিষেধ রাজ্যে বলবৎ ছিলো। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছেন যে রাজ্যে করোনার সংক্রমণের হার অনেকটাই বাগে আনা সম্ভব হচ্ছে। তাই আগামী ১ লা জুলাই পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে বিধিনিষেধ।

কিন্তু এক্ষেত্রে আর‌ও বেশ কিছু বিষয়ে ছাড় দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি রয়েছে বেশ কিছু বিধিনিষেধ‌ও। যেমন,বন্ধ থাকবে লোকাল ট্রেন পরিষেবা‌ । বাস পরিষেবা, জলযান পরিষেবা।স্কুল , কলেজ সহ অন্যান্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গুলি বন্ধ রাখা হবে।

বন্ধ রাখা হবে বিউটি পার্লার, স্পা এবং জিম।রাত ৯ টা থেকে পরদিন সকাল ৫ টা পর্যন্ত বন্ধ রাখা হবে যান চলাচল, দোকান বাজার। তবে জরুরী পরিষেবা গুলি চালু থাকবে।বিবাহ বা অন্যান্য সামাজিক অনুষ্ঠান গুলিতে সর্বোচ্চ ৫০ জনকে নিয়ে অনুষ্ঠান করা যাবে।

আরও পড়ুন-রাজ্যে আর‌ও বাড়লো বিধি নিষেধ। তবে ছাড় কিছু ক্ষেত্রে।

কোন রকমের বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান এই সময়ে করা যাবে না এবং কোন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বহু মানুষের সমবেত হওয়া যাবে না।ছাড় দেওয়া হয়েছে বেশ কিছু বিষয়ে যেমন, সমস্ত সরকারি অফিস গুলি কাজ শুরু করে দিতে পারবে কিন্তু ২৫% কর্মীদের নিয়ে কাজ শুরু করতে হবে।সমস্ত বেসরকারি অফিস গুলি কাজ শুরু করে দিতে পারবে সকাল ১০ টা থেকে বিকাল ৪ টে পর্যন্ত। এক্ষেত্রে ২৫% কর্মী নিয়ে কাজ করতে পারবে।

কর্মীদের যাতায়াতের ব্যবস্থা করতে হবে অফিস কর্তৃপক্ষকেই। এছাড়াও এই মর্মে পুলিশের থেকে নিতে হবে ই পাস।দুটি ভ্যাকসিন নেওয়া থাকলে সকাল ৬ টা থেকে সকাল ৯ টা পর্যন্ত প্রাতভ্রমণ করা যাবে।রেস্টুরেন্ট গুলি খুলে রাখা যাবে দুপুর ১২ টা থেকে রাত ৮ টা পর্যন্ত ।

আরও পড়ুন-বিজেপি করার অপরাধে করা হলো গণধর্ষণ। তৃণমূলের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ ধর্ষিত মহিলারা

কিন্তু সেখানে ২৫% আসন রাখতে হবে।এছাড়াও শপিংমলের ভিতরের খুচরো দোকান খুলে রাখা যাবে সকাল ১১ টা থেকে সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত এবং সেখানে ২৫% কর্মী কাজ করতে পারবেন।বাজার হাট এবং খুচরা দোকান গুলি খুলে রাখা যাবে সকাল ৭ টা থেকে রাত ৯ টা পর্যন্ত। অন্যান্য দোকানগুলি খুলে রাখা যাবে সকাল ১১ টা থেকে সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত।

সিনেমা অথবা সিরিয়ালের শুটিং করা যাবে ৫০ জন কলা কুশলী ও কর্মচারীদের নিয়ে।যে কোন স্টেডিয়ামে খেলাধুলা করা যেতে পারে কিন্তু কোন দর্শক থাকলে চলবে না।

Related Articles

Back to top button