নিউজপলিটিক্সরাজ্য

“খেলরত্ন পুরস্কার হওয়া উচিৎ মমতা বন্দোপাধ্যায়ের নামে”- দাবি করলেন কুণাল

নিজস্ব প্রতিবেদন: টোকিও অলিম্পিকে ভারতীয় হকি দলের সাফল্যে গর্বিত হয়েছে আপামর ভারতবাসী। এবার ভারতীয় হকি দলের এই সাফল্যের পরেই সমগ্র দেশবাসীকে আনন্দের একটি সংবাদ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন যে এখন থেকে দেশের সর্বোচ্চ ক্রীড়া সম্মানের নাম রাজীব গান্ধী খেলরত্ন অ্যাওয়ার্ড এর বদলে হয়েছে ‘মেজর ধ্যানচাঁদ খেলরত্ন অ্যাওয়ার্ড।‘টুইট করে এই সংবাদ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

প্রধানমন্ত্রী টুইট করে বলেছেন, “অনেকদিন ধরেই দেশবাসী আমাকে অনুরোধ করেছিলেন যে এই খেলরত্ন অ্যাওয়ার্ড এর নাম হোক ধ্যানচাঁদের নামে । তাই সমগ্র দেশবাসীর আবেগকে স্বীকৃতি দিতে আমি এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি। বিগত ১৯৯১-১৯৯২ সাল থেকে কেন্দ্রীয় ক্রীড়া এবং যুব কল্যাণ মন্ত্রক এই পুরস্কার প্রদান করে আসছে।”ভারতের প্রয়াত প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধীর নামেই এইছের রত্ন অ্যাওয়ার্ড চালু করা হয়েছিলো এই অ্যাওয়ার্ড যারা পায় তাদের হাতে তুলে দেওয়া হয় একটি পদক একটি শংসাপত্র এবং নগদ ২৫ লক্ষ টাকা।

আরও পড়ুন-“বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে পাশে চাই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে।”- স্পষ্টতই বার্তা দিলেন সূর্যকান্ত মিশ্র।

পৃথিবী বিখ্যাত দাবাড়ু বিশ্বনাথন আনন্দ এই পুরষ্কার প্রথম পেয়েছিলেন। এছাড়াও অলিম্পিকের সোনাজয়ী অভিনব বিন্দ্রাকে এই পুরস্কার দেওয়া হয়েছিল।এদিকে এই ঘোষণার পর বহু দেশবাসী প্রধানমন্ত্রীর এই সিদ্ধান্তকে সম্মান জানালেও কংগ্রেস নেতারা যথেষ্ট বিরোধিতা শুরু করেছে। যদিও গান্ধী পরিবারের পক্ষ থেকে এখনো কোনো বিবৃতি জারি করা হয়নি।

আরও পড়ুন-বিজেপি রাজ্য সভাপতি পরিবর্তনের জল্পনা উড়িয়ে দিলেন দিলীপ ঘোষ

এবার প্রধানমন্ত্রীর এই সিদ্ধান্তকে কটাক্ষ করে একটি মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রীর একনিষ্ঠ বিরোধী বলে পরিচিত কমেডিয়ান কুনাল কামরা । এমনিতেই বেশিরভাগ সময়ে কেন্দ্রীয় সরকার এবং প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় নানান কটাক্ষ করে থাকেন কুনাল কামরা । এবার রাজীব গান্ধী খেলরত্ন অ্যাওয়ার্ড এর নাম পরিবর্তন করার প্রসঙ্গে কুনাল বলেছেন, “প্রকৃত খেলা বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় খেলেছেন তাই উনার নামে এই পুরস্কার নামাঙ্কিত হোক।”

Related Articles

Back to top button