নিউজটেক নিউজরাজ্য

প্রথম গ্যাস চালিত বেসরকারি বাসের যাত্রার শুভ সূচনা হলো কলকাতায়। উদ্বোধন করলেন ফিরহাদ হাকিম।

নিজস্ব প্রতিবেদন: বর্তমানে সমাজে এক অভিশাপ রূপে গণ্য হচ্ছে বায়ু দূষণ। ক্রমাগত পেট্রোপণ্যের জ্বালানির ফলে সৃষ্ট বায়ুদূষণ রোধ করতে বেশ কিছু পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে রাজ্যের পরিবহন মন্ত্রক। তাই এই দূষণের কথা মাথায় রেখে ইলেকট্রিক বাসের দিকে আরো গুরুত্ব আরোপ করছে রাজ্য সরকার। কলকাতার মাটিতে ইতিমধ্যেই ইলেকট্রিক বাস চলতে শুরু করে দিয়েছে।

পরিবহন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম জানিয়েছিলেন আগামী দিনে কলকাতার রাস্তায় আরো বেশি সংখ্যায় ইলেকট্রিক বাস চলাচল করবে। এবার পরিবহন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম এর শুভ উদ্বোধন এর মাধ্যমে কলকাতায় সূত্রপাত হলো সিএনজি গ্যাস চালিত বাসের যাত্রা।জানা গিয়েছে গত ২১ শে জুন ফিরহাদ হাকিমের নেতৃত্বে রাজ্য সরকারের সাথে বেঙ্গল গ্যাস কোম্পানির একটি চুক্তি সম্পন্ন হয়েছিল এই গ্যাস চালিত বাসের বিষয়ে। পরিবহনমন্ত্রী তখন বলেছিলেন যে সিএনজি চালিত বেসরকারি বাসের জন্য পরবর্তী ছয় মাসের মধ্যেই কলকাতার বিভিন্ন জায়গায় ফিলিং স্টেশন বানিয়ে দেবে রাজ্য।

আরও পড়ুন-আজ আকাশপথে উদয়নারায়ণপুরের বন্যা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

এর ফলে কলকাতার মাটিতে যেমন পরিবেশ দূষণে অনেকটাই লাগাম টানা যাবে তেমনি এই পেট্রোল-ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধির যুগে বাস মালিকরা অনেকটাই লাভের মুখ দেখতে পাবেন।এবার কলকাতার মানুষ আজ যুগান্তকারী একটি ঘটনার সাক্ষী থাকলেন। ‌ আজ থেকেই কলকাতায় শুভ সূচনা হলো সিএনজি চালিত বাসের যাত্রার। জানা গিয়েছে কলকাতায় দুটি সিএনজি চালিত বাসের উদ্বোধন করা হতে চলেছে ফিরহাদ হাকিমের হাত ধরে।

আরও পড়ুন-“আগামী তিন বছরে সড়ক নির্মাণে আমেরিকাকে ছুঁয়ে ফেলবে ভারত”- বললেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নীতিন গডকড়ী

ফিরহাদ হাকিম জানিয়েছেন যে খুব শীঘ্রই হাওড়া থেকে শুরু করে করুণাময়ী, নীলগঞ্জ, বেলঘড়িয়া, সাঁতরাগাছি, ঠাকুরপুকুর, সল্টলেক প্রভৃতি জায়গায় ফিলিং স্টেশন তৈরীর প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়ে যাবে।বর্তমানে সারা দেশের মধ্যে কলকাতার মাটিতে পরিবেশ দূষণের বিষয়টি অনেকটাই মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে। নিরন্তর কলকাতার মাটিতে পেট্রোল-ডিজেলের ফলে সৃষ্ট দূষণ এবং অন্যান্য বিষয় গুলি থেকে সৃষ্ট দূষণের অনেকটাই জেরবার হয়ে যাচ্ছেন নাগরিকরা। তাই অন্তত পরিবহন ক্ষেত্রে যাতে এই দূষণ কমানো যেতে পারে তার জন্য খুব শীঘ্রই আরও বেশি মাত্রায় ব্যাটারিচালিত এবং সিএনজি চালিত যানবাহন চালানোর চেষ্টা করছে রাজ্য সরকার।

Related Articles

Back to top button