করোনা সংক্র’মণে পয়লা আগস্ট থেকে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে তারাপীঠ মন্দিরের দরজা

ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃ-ত্যু হয়েছে ৭৭৯ জনের। যার ফলে দেশে করোনায় এখনো পর্যন্ত মোট মৃ-তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৫,৭৪৭ জন। মৃ-তের সংখ্যায় এবার ইটালিকে ছাপিয়ে বিশ্বের মধ্যে পঞ্চম স্থানে উঠে এসেছে ভারত। যা অতি উদ্বেগের বিষয়। ভারতে এখনও পর্যন্ত করোনার প্র-কো-প থেকে সুস্থ্য হয়ে উঠেছেন ১০ লক্ষ ৫৭ হাজার ৮০৫ জন। এশিয়ার মধ্যে করোনা আ-ক্রা-ন্তে-র সংখ্যার নিরিখে প্রথম স্থানে রয়েছে ভারত।

রেকর্ড গড়ে গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে করোনার নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৬ লক্ষের বেশী। দেশের মধ্যে সব থেকে স-ঙ্ক-টজনক পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে গুজরাত, তামিলনাডু, দিল্লি, মহারাষ্ট্রে৷ সরকারি মতে, মহারাষ্ট্রে মোট আ-ক্রা-ন্তে-র সংখ্যা এখনো পর্যন্ত ৪ লক্ষ ১১ হাজার ৭৯৮জন। মৃ-ত্যু হয়েছে ১৪,৭২৯ জনের৷ আ-ক্রা-ন্তে-র সংখ্যায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে তামিলনাড়ু। পশ্চিমবঙ্গে মোট করোনা আ-ক্রা-ন্তে-র সংখ্যা ৬৭ হাজার ৬৯২ জন। করোনায় মৃ-তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১,৫৩৬ জন।

আরও পড়ুন – মাধ্যমিক পরীক্ষা কী পুরোপুরি উঠে যাচ্ছে? জানুন খুঁটিনাটি প্রশ্নের উত্তর

গত ২৩ জুন রথযাত্রার দিন ভক্তদের জন্যে খুলে দেওয়া হয়েছিলো তারাপীঠ মন্দিরের দরজা। তবে সরকারি নির্দেশ মেনে স্যানিটাইজার টানেল বসিয়ে, নিদিষ্ট স্বাস্থ্যবিধি মেনে ভক্তদের মা তারার মন্দিরে পুজো দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছিলো। কিন্তু মন্দিরের গর্ভগৃহে কাউকে প্রবেশ করার অনুমতি দেওয়া হচ্ছিলো না। কিন্তু এবার চিত্রটা আবার বদলেছে। করোনার ভয়াল থাবা পড়েছে তারাপীঠ মন্দিরের পার্শ্ববর্তী অঞ্চলেও।

আরও পড়ুন – বাইক-গাড়িপ্রেমীদের জন্য বড় সুখবর, শনিবার থেকে কমছে বেশকিছু গাড়ির দাম

যখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে তখন আবার ভক্তদের জন্য মায়ের মন্দিরের দরজা খুলে দেওয়া হবে। তারাপীঠে সবচেয়ে বেশি ভক্তের সমাগম ঘটে ভাদ্র মাসের কৌশিকী অমাবস্যাতে। কৌশিকী অমাবস্যার বিশেষ দিনে প্রতি বছরই বীরভূমের তারাপীঠে প্রায় পাঁচ থেকে দশ লক্ষ ভক্তদের উপস্থিতি ঘটে। এই দিনটিতে বাংলা ছাড়াও বাইরের রাজ্য থেকেও পূজো দিতে, মা’কে দর্শন করতে আসেন ভক্তরা।

আরও পড়ুন – সুশান্ত মা’মলায় কেনো CBI ত’দন্ত হচ্ছেনা? এবার রিয়াকে নিয়ে মুখ খুললেন অঙ্কিতা, বেরিয়ে আসলো আসল সত্য!

কিন্তু বর্তমানে এই ভয়াবহ পরিস্থিতিতে সাধারণ মানুষের কথা ভেবেই আবার মন্দির অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আগামী ১ লা আগস্ট থেকেই অনির্দিষ্টকালের জন্যে বন্ধ করা হচ্ছে মায়ের মন্দিরের দরজা। তারাপীঠ মন্দির কমিটির সভাপতি তারাময় বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, “সবার আগে মানুষের জীবনের গুরুত্ব রয়েছে। করোনার এই ভ-য়াব-হ পরিস্থিতির কারণেই আমাদের এই সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে। তাই আমরা অনির্দিষ্টকালের জন্য মন্দির বন্ধ রাখছি আগামী ১ লা আগষ্ট থেকে।

এখানে আপনার মতামত জানান