করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের আগমনের পূর্বেই দুশ্চিন্তা বাড়াচ্ছে ‘ডেল্টা ভেরিয়েন্ট’। আতঙ্ক দেশে।

করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের আগমনের পূর্বেই দুশ্চিন্তা বাড়াচ্ছে ‘ডেল্টা ভেরিয়েন্ট’। আতঙ্ক দেশে।

নিজস্ব প্রতিবেদন: সারা দেশ জুড়ে ভয়াবহ পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছে করোনা ভাইরাস। সারা দেশে এই ভাইরাসের কবলে পড়েছেন মোট ২ কোটি ৯৯ লক্ষ ৩৪ হাজার ৩৬১ জন। মৃত্যু হয়েছে ৩ লক্ষ ৮৮ হাজার ১৬৪ জনের। সুস্থ্য হয়েছেন ২ কোটি ৮৮ লক্ষ ৩৬ হাজার ৫২৯ জন।

রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৪ লক্ষ ৮১ হাজার ৭০৭ জন। মৃত্যু হয়েছে ১৭ হাজার ৩৪৮ জনের। সুস্থ্য হয়েছেন ১৪ লক্ষ ৪১ হাজার ৩৪৩ জন।বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা আগেই জানিয়েছে যে ভারতে ছড়িয়ে পড়া করোনার স্ট্রেইন অনেকটাই শক্তিশালী।

আরও পড়ুন-আড়াই মাস পূর্বের জায়গায় ফিরে এলো করোনার সংক্রমণ। কমলো মৃত্যুর সংখ্যাও।

চলতি সপ্তাহের প্রারম্ভেই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছিলো ভারতের করোনার বি.১.৬১৭ ভেরিয়েন্টের আরো তিনটি উপ প্রজাতি বর্তমান। করোনার ভারতীয় ভেরিয়েন্ট অত্যন্ত বেশী মাত্রায় সংক্রামক। উপ প্রজাতির ভেরিয়েন্টগুলি আরো বেশী বিপজ্জনক বলে মনে করছে হু। খুব শীঘ্রই আছড়ে পড়তে পারে করোনার তৃতীয় ঢেউ , এমনটাই আশঙ্কা চিকিৎসকদের।

আরও পড়ুন-রাজ্যে নীচে নামলো দৈনিক করোনা আক্রান্তের হার

এর‌ই মাঝে শোনা গিয়েছে একটি অত্যন্ত উদ্বেগজনক খবর। করোনার তৃতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার আগে এবার আতঙ্ক ছড়াচ্ছে করোনার ডেল্টা ভেরিয়েন্ট। তামিলনাড়ুতে করোনা আক্রান্তদের জিন বিশ্লেষণ করে এই চিত্র উঠে এসেছে। তামিলনাড়ুতে করোনা পরীক্ষা করানো ৭০% জনের শরীরে পাওয়া গিয়েছে এই ডেল্টা ভেরিয়েন্ট।

আরও পড়ুন-“করোনার তৃতীয় ঢেউয়ে শিশুদের ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার সম্ভাবনা অনেকটাই কম”- রিপোর্ট জারি করলো বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এবং AIIMS

জানা গিয়েছে ১ হাজার ১৫৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে তার মধ্যে রিপোর্ট পাওয়া গিয়েছে ৫৫৪ জনের। আর তার মধ্যে ৩৮৬ জনের শরীরেই পাওয়া গিয়েছে এই বিপজ্জনক ডেল্টা ভেরিয়েন্ট। এখনো পর্যন্ত ৬০৫ জনের নমুনা রিপোর্ট পাওয়া বাকি।এর মধ্যে মোট কতজন এই ডেল্টা ভেরিয়েন্টের শিকার তা জানার জন্য তামিলনাড়ুতে আক্রান্তদের জিন বিশ্লেষণ করা হচ্ছে।

এই ঘটনায় যথেষ্ট আতঙ্ক ছড়াচ্ছে সারা ভারত জুড়ে। এই ডেল্টা প্রজাতির ভাইরাসের সারা ভারত জুড়ে ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কায় বিজ্ঞানী ও চিকিৎসকরা।