নিউজপলিটিক্সরাজ্য

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ে বিরুদ্ধে ভবানীপুর কেন্দ্রে উপনির্বাচনে কংগ্রেস প্রার্থী না দিলেও প্রস্তুত থাকতে চলেছে সিপিএম।

নিজস্ব প্রতিবেদন: ভবানীপুর বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচনের তৃণমূলের প্রার্থী পদে দাঁড়াচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ‌ যেহেতু তিনি নন্দীগ্রামের মাটিতে দাঁড়িয়ে পরাজয়ের মুখ দেখেছেন তাই তাকে এই উপ নির্বাচনে জিততে হবে তবেই তার মুখ্যমন্ত্রীত্ব বজায় থাকবে। এদিকে ভবানীপুরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে প্রার্থী দেবেন না বলে জানিয়েছেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী। কিন্তু বাম শরিক সিপিএম জানিয়েছে যে, উক্ত কেন্দ্রে তাঁরা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে প্রার্থী দিতে চলেছে।

জানা গিয়েছে রাজ্যের সাতটি বিধানসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচন হতে চলেছে। সংযুক্ত মোর্চার মধ্যে আসন বণ্টনের বিষয়ে যে বোঝাপড়া হয়েছিল, তাতে ভবানীপুর এবং শান্তিপুরে প্রার্থী দেওয়ার ঘোষণা করেছিল কংগ্রেস। সামশেরগঞ্জ আসনে সিপিএম এবং কংগ্রেস উভয়েই প্রার্থী দিয়েছে । সামশেরগঞ্জে আসনটিতে প্রার্থীর মৃত্যু হয়েছিল, তাই এই আসনটি ছাড়তে চাইছে না সিপিএম এবং কংগ্রেস দুপক্ষই ।

আরও পড়ুন-দিল্লিতে মুকুল রায়ের বাড়ি কুক্ষিগত রাখতে তৎপর হল তৃণমূল।

এদিকে ভবানীপুরে প্রার্থী দেবেন না বলে জানিয়েছেন অধীর চৌধুরী কিন্তু তিনি শান্তিপুর এবং সামশেরগঞ্জ কংগ্রেস প্রার্থীদের দাঁড় করানোর পক্ষে সওয়াল করেছেন। ‌ এই বিষয়ে কংগ্রেসের সাথে আলোচনা করতে চেয়েও বামফ্রন্ট এবং কংগ্রেসের মধ্যে আলোচনা সম্ভব হয়নি বলে জানা গিয়েছে। যার ফলে অদূর ভবিষ্যতে জোট ঘিরে সিপিএম এবং কংগ্রেস এর মধ্যে যথেষ্ট ধোঁয়াশার সৃষ্টি হয়েছে।যার দরুন সিপিএম নেতৃত্বের জানিয়েছে যে ভোটের দিনক্ষণ ঘোষিত হলেই ভবানীপুরে প্রার্থী দিতে চলেছে সিপিএম।

আরও পড়ুন-ম্যান মেড বন্যা বলেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। উত্তর দিলো ডিভিসি।

‌ সিপিএম নেতৃত্ব জানিয়েছে যে,”সকলেই জানে উপনির্বাচনের ফলাফল কি হতে চলেছে। ‌ কিন্তু তা সত্বেও বিজেপিকে এক ইঞ্চিও জমি ছাড়া যাবে না। ‌ বিজেপি বিধানসভায় প্রধান বিরোধী দলের ভূমিকায় আসীন হয়েছে। কিন্তু তাই বলে তাদের চেয়ে জায়গা ছেড়ে দিতে হবে সেটা আমরা কখনোই মেনে নিতে পারব না।

‌ ভোটের দিনক্ষণ ঘোষিত হলেই ভবানীপুরের প্রার্থী সম্পর্কে আমরা সমস্ত কিছু জানিয়ে দেব।”

Related Articles

Back to top button