নিউজ

করোনা ওয়ার্ডে টানা ১২ ঘন্টা পড়ে করোনা রোগীর মৃতদেহ

নিজস্ব প্রতিবেদন: সারা দেশ জুড়ে ভয়াবহ চিত্র ধরা পড়েছে করোনার এই আবহে। দিনের পর দিন বহু মানুষের প্রাণ যাচ্ছে এই ভাইরাস এর শিকার হয়ে। এর পাশাপাশি বেশ কিছু জায়গায় স্বাস্থ্য দপ্তরের চরম অব্যবস্থা লক্ষিত হয়েছে । অনেক জায়গাতেই দেখা দিয়েছে সময়মতো অ্যাম্বুলেন্স পাওয়া যাচ্ছে না আবার অনেক জায়গাতে বেড পাওয়া যাচ্ছে না। বেশ কিছু জায়গায় করোনা রোগীদের মৃতদেহ পড়ে থাকছে ঘন্টার পর ঘন্টা।

চরম অচলাবস্থা দেখা দিয়েছে দিকে দিকে। আবার অনেক জায়গাতে হাসপাতালে ভর্তি হতে নাজেহাল হয়ে যাচ্ছেন রোগীরা।অমানবিক ঘটনা ঘটেছে গড়িয়াহাট থানা এলাকার ১৯ নম্বর ফার্ন রোডে। করোনা রোগীর মৃতদেহ টানা ৬ ঘন্টা ফ্ল্যাটেই পরে থাকার পর পুলিশ এসে দরজা ভেঙে উদ্ধার করেছে রোগীর মৃতদেহ।এছাড়াও গতকাল বাগুইহাটিতে ১৫ ঘন্টা পর উদ্ধার করা হয়েছে এক করোনা রোগীর মৃতদেহ।

আরও পড়ুন-করোনা প্রাণ কাড়লো বাংলার অন্যতম দুই দক্ষ চিকিৎসকের

এছাড়াও এই চিত্র দেখা গিয়েছে সোনারপুর থেকে শুরু করে গড়ফা, তিলজলা, লেকটাউনেও। এবার কালনা মহকুমা সুপার স্পেশালিটি করোনা ওয়ার্ডে টানা ১২ ঘন্টা পড়ে র‌ইলো করোনা রোগীর মৃতদেহ। মৃত বৃদ্ধার করোনায় মৃত্যু হয়েছে গতকাল রাতে। কিন্তু তার পর থেকেই চিকিৎসক থেকে শুরু করে নার্সকে খবর দেওয়া সত্ত্বেও দেহ সরানো হয়নি বেড থেকে, যার ফলে ঘন্টার পর ঘন্টা ওই বৃদ্ধার মৃতদেহ পড়ে থাকে । রীতিমতো আতঙ্কিত হয়ে পড়েন আশে পাশের বেডে থাকা রোগীরা । সুপারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি দ্রুত এই মৃতদেহ সরানোর ব্যবস্থা করেন। তারপরে প্রায় ১২ ঘন্টা পর এই মৃতদেহ সরানো হয়।

Related Articles

Back to top button