ভোট প্রচারে ২৪ ঘন্টার নিষেধাজ্ঞা দিল কমিশন। প্রতিবাদে ধর্নায় বসলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

ভোট প্রচারে ২৪ ঘন্টার নিষেধাজ্ঞা দিল কমিশন। প্রতিবাদে ধর্নায় বসলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

নিজস্ব প্রতিবেদন: একুশের ভোটের আগে তপ্ত হচ্ছে রাজনৈতিক পরিস্থিতি । বাংলার আকাশে বাতাসে বারুদের গন্ধ, রক্তের দাগ একুশের ভোটকে করে তুলেছে বিভীষিকাময়। নির্বাচন কমিশন যদিও তৎপর রয়েছে রাজ্যের বুকে ভোটের এই আবহে শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখতে, কিন্তু নির্বাচন কমিশনের নির্দেশকে বুড়ো আঙুল দেখিয়েই রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় রাজনৈতিক সংগঠনের নেতাকর্মীরা হিংসা হানাহানি তে মত্ত হয়ে উঠছে।

যার জন্য অকালে ঝরে যাচ্ছে বেশ কিছু তরুণ প্রাণ। কোচবিহারের শীতলকুচি তে কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানদের গুলিতে প্রাণ দিয়েছে চার তরুণ তৃণমূল সমর্থকের। এই ঘটনায় ব্যাপক উত্তেজনা বাংলার রাজ্য রাজনীতির বুকে। এছাড়াও বিভিন্ন জায়গায় রাজনৈতিক সংগঠনের পার্টি অফিস ভাঙচুর, কর্মী-সমর্থকদের বাড়ি ভাঙচুর, মারধরের ঘটনা ঘটছে। নির্বাচন কমিশন নির্দেশ দিয়েছিলো যে আত্মরক্ষার্থে গুলি চালাতে পারে কেন্দ্রীয় বাহিনী। এরপরেই কোচবিহারের শীতলকুচিতে কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে মারা গিয়েছে চারজন তৃণমূল সমর্থক।

আরও পড়ুন-“কিসের জন্য হিংসা করছেন? সিংহাসনকে ধরে রাখার জন্য?”- মুখ্যমন্ত্রী কে আক্রমণ করলেন মহাগুরু মিঠুন চক্রবর্তী

বাহিনী অভিযোগ করেছে যে প্রায় ৩০০ থেকে ৪০০ জন লোক তাদের ঘিরে ধরে আক্রমণ করতে এসেছিলো, তাই নিরাপত্তার স্বার্থে গুলি চালিয়েছে বাহিনী।নির্বাচন কমিশন প্রথম থেকেই তৎপর যাতে স্বচ্ছ এবং অবাধ শান্তিপূর্ণ ভোট করা যায় বাংলার মাটিতে। কিন্তু হিংসা হানাহানি ঘটনা প্রায়ই ঘটতো থাকায় আরো কড়া হয়েছে নির্বাচন কমিশন। কোচবিহারের শীতলকুচি তে ৭২ ঘন্টা রাজনৈতিক নেতা-নেত্রীদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল কমিশন। এদিকে আজ রাত আটটার পর বিধান নগর এবং বারাসাতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সভা বাতিল করে দেওয়া হয়েছে। ‌

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভোট প্রচারের উপর ২৪ ঘন্টা নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে নির্বাচন কমিশন। গতকাল রাত ৮ টা থেকে আজ রাত ৮ টা পর্যন্ত মুখ্যমন্ত্রী কোন জনসভা করতে পারবেন না। নির্বাচন কমিশনের এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানিয়ে আজ গান্ধী মূর্তির পাদদেশে ধর্নায় বসতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেছেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের নির্দেশে নাকি কাজ করছে নির্বাচন কমিশন। তিনি টুইট করে বলেছেন, “নির্বাচন কমিশনের অসাংবিধানিক এবং অগণতান্ত্রিক সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানিয়ে আজ বেলা ১২ টায় গান্ধী মূর্তির নীচে আমরা ধর্নায় বসতে চলেছি ।”