নিউজঅফবিটস্বাস্থ্য

রাজ্যে ৩০০ জন স্বেচ্ছাসেবকের উপর প্রয়োগ করা হবে ককটেল ভ্যাকসিন

নিজস্ব প্রতিবেদন: সারা দেশজুড়ে করোনার গ্রাসে পড়েছেন বহু মানুষ। এখনো পর্যন্ত অর্ধেক দেশবাসীকে ভ্যাকসিন দেওয়া চালু হয়নি। এই আবহের মধ্যে ভ্যাকসিনের অপ্রতুলতায় যথেষ্ট কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে পড়েছেন রাজ্যবাসী। বর্তমানে রাজ্যের বুকে ব্যাপকহারে দুটি টিকা দেওয়া হচ্ছে প্রধানত।

কোভিশিল্ড এবং কোভ্যাক্সিন দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু কোভ্যাক্সিন এবং কোভিশিল্ডের মিশ্রণ কি হতে পারে করোনার প্রতিরোধে অব্যর্থ উপায়? এমনটাই ধারণা করছেন বিজ্ঞানীরা। বিভিন্ন পরীক্ষা নিরীক্ষার সাহায্যে প্রমাণিত হচ্ছে যে করোনার প্রতিরোধে অব্যর্থ উপায় বলে গণ্য হচ্ছে ।

আরও পড়ুন-আজ থেকেই কলকাতায় পাওয়া যাবে করোনার ভ্যাকসিন। বিজ্ঞপ্তি দিল পুরসভা

এবার করোনা মোকাবিলায় ককটেল ভ্যাকসিনের পরীক্ষায় অনুমোদন দিয়েছে ড্রাগ কন্ট্রোল অফ ইন্ডিয়া। কোভিড মোকাবিলায় কোভিশিল্ড এবং কোভ্যাক্সিন কতটা কর্যকরী সেই বিষয়টি এবার পরীক্ষা করে দেখা হতে চলেছে। রাজ্যে ৩০০ জন স্বেচ্ছাসেবকের উপর পরীক্ষামূলকভাবে এই প্রয়োগ করা হবে। ক্রিশ্চিয়ান মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হসপিটাল কে এই পরীক্ষার জন্য অনুমোদন দেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

আরও পড়ুন-“তৃতীয় ঢেউয়ে যে শিশুরাই সংক্রামিত হবে সেরকম প্রমাণ পাওয়া যায়নি এখনো”- বললেন বিশেষজ্ঞরা।

কেন্দ্রীয় ড্রাগ কন্ট্রোল ওই হসপিটালের পরীক্ষাকে ছাড়পত্র দিয়েছে। ১ লক্ষ ১২ হাজার ২৩০ টি কোভ্যাক্সিনের ডোজ আজ বাগবাজারের মেডিকেল‌ স্টোরে এসে পৌঁছে গিয়েছে।এদিকে সারা দেশে করোনা আক্রান্ত ৩৬% বেড়েছে। সারা দেশে করোনায় মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৩ কোটি ২০ লক্ষ ৩৬ হাজার ৫১১ জন।

Related Articles

Back to top button