নিউজ

কন্যাশ্রী দিবসে টুইট করলেন মুখ্যমন্ত্রী। কি বললেন তিনি ?

নিজস্ব প্রতিবেদন: পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অন্যতম মস্তিষ্কপ্রসূত প্রকল্প হল কন্যাশ্রী প্রকল্প। সারা বিশ্বের দরবারে এই প্রকল্প যথেষ্ট প্রশংসা পেয়েছে। বিশ্বমঞ্চে দরবারে মুখ্যমন্ত্রী স্বপ্নের এই প্রকল্প পুরস্কৃত হয়েছে। সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে কন্যাশ্রী প্রকল্প শুরু হওয়ার পর মেয়েদের অল্প বয়সে বিয়ে দেওয়ার প্রবণতা অনেকটাই কমে গিয়েছে এবং তাদের উচ্চশিক্ষা পর্যন্ত পড়াশোনা করানোর ক্ষেত্রে অভিভাবক দের অনেকটাই সক্রিয়তা দেখা গিয়েছে।

এই প্রকল্পে বাংলার মেয়েরা অনেকটা উপকৃত হয়েছে বলে দেখা গিয়েছে বিভিন্ন সমীক্ষায়। মুখ্যমন্ত্রী নারী কল্যাণ প্রকল্পের মধ্যে এই কন্যাশ্রী প্রকল্প এবং আরেকটি প্রকল্প রূপশ্রী চালু করেছেন। রূপশ্রী প্রকল্পের ফলে মেয়েদের বিয়ে দেওয়ার ক্ষেত্রে অভিভাবকদের অনেকটাই সুরাহা হয়েছে। আজ এই কন্যাশ্রী দিবস এদিন মুখ্যমন্ত্রী আবেগপূর্ণ টুইট করে তার মতামত ব্যক্ত করেছেন রাজ্যবাসীর উদ্দেশ্যে।

আরও পড়ুন –নর্থ সেন্ট্রাল রেল‌ওয়েতে জারি হল ১৬৬৪ টি শূন্যপদের বিজ্ঞপ্তি।

মুখ্যমন্ত্রী প্রথম বার ক্ষমতায় আসীন হওয়ার পরেই তিনি ঘোষণা করেছিলেন রাজ্যে স্ত্রী শিক্ষা বিস্তারে তিনি যথেষ্ট প্রচেষ্টা করবেন। বাম আমলে দেখা গিয়েছিল মেয়েদের নাবালিকা থাকাকালীন বিয়ে দেওয়ার প্রবণতা অনেকটাই বৃদ্ধি পেয়েছিল। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী ক্ষমতায় আসীন হওয়ার পরেই কন্যাশ্রী প্রকল্প চালু করে মেয়েদের অল্প বয়সে বিয়ে দেওয়ার প্রবণতা রোধ করে দিয়েছেন। বর্তমানে স্কুলে স্কুলে ছাত্রদের তুলনায় ছাত্রীর সংখ্যাও সমানে বৃদ্ধি পেয়েছে।

আজ বাংলার মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় কৃতি ছাত্রী দের সংখ্যা ছাত্রদের থেকেও বরঞ্চ বেশি হয়ে গিয়েছে । বাংলার মেয়েরা উচ্চ শিক্ষা লাভ করে উজ্জ্বল ভবিষ্যতের দিকে ধাবিত হয়েছে। এই আবহের মধ্যে আজ কন্যাশ্রী দিবসের দিন টুইট করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আরও পড়ুন –খড়দহ তে শুটআউটে নিহত তৃণমূল কর্মী। তুঙ্গে উঠলো টিএমসি বিজেপির দ্বৈরথ।

তিনি টুইট করে লিখেছেন, “কন্যাশ্রী দিবসের দিন আমি আমার বাংলার মেয়েদের সাফল্যের গল্প উদযাপন করছি। আমি তাদের দৃঢ় মানসিকতা, তাদের সাফল্য, তাদের নৈপুণ্যে গর্বিত। কন্যাশ্রী প্রকল্প লক্ষ লক্ষ মেয়েদের স্বপ্ন পূরন করতে সহায়তা করেছে। একটা জাতি হিসেবে আমাদের অবশ্যই একসাথে কাজ করা উচিৎ, নারীদের সম্মান বৃদ্ধি করার জন্য।”

Related Articles

Back to top button