মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা সম্পর্কে জনসাধারণের মতামত প্রার্থনা মুখ্যমন্ত্রীর।

মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা সম্পর্কে জনসাধারণের মতামত প্রার্থনা মুখ্যমন্ত্রীর।

নিজস্ব প্রতিবেদন: মধ্যশিক্ষা পর্ষদ এবং উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ জানিয়েছিলো যে আগস্টে হতে পারে মাধ্যমিক এবং তার আগে জুলাইয়েই হয়ে যাবে উচ্চমাধ্যমিক। জানা গিয়েছিল পরীক্ষা হবে পরীক্ষার্থীদের নিজস্ব স্কুলেই। করোনা আবহে পরীক্ষার্থীদের সুরক্ষার বিষয়টি সম্পর্কে গুরুত্ব দিয়ে বোর্ড জানিয়েছিলো যে তিন ঘন্টার পরীক্ষা হবে দেড় ঘন্টায়। মাল্টিপল চয়েসের উপর অধিক গুরুত্ব দেওয়ার কথা বলা হয়েছিলো।

এছাড়াও পরীক্ষা হলে কড়া করোনা বিধিনিষেধ অবলম্বন করার কথাও বলা হয়েছিলো। ঘোষণা করা হয়েছিলো যে শুধুমাত্র আবশ্যিক বিষয়গুলির পরীক্ষা নেওয়া হবে, বাকি বিষয়গুলির স্কুলে পরীক্ষায় পাওয়া নম্বরের ভিত্তিতে মূল্যায়ন হবে।কিন্তু এবার জানা গিয়েছে, করোনা আবহে হয়তো বাতিল হতে পারে মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা। রাজ্য সরকারের গঠিত ছয় সদস্যের বিশেষজ্ঞ কমিটি মতামত দিয়েছে যে এই ভয়াবহ আবহে ২১ লক্ষ পরীক্ষার্থীর পরীক্ষা নেওয়া এই মুহূর্তে সম্ভব নয়।

আরও পড়ুন-“পড়ুয়াদের কল্যাণ ও স্বাস্থ্য সরকারের কাছে অধিক গুরুত্বপূর্ণ।”- সিবিএস‌ই দ্বাদশের পরীক্ষা বাতিল প্রসঙ্গে বললেন প্রধানমন্ত্রী।

এর কারণ হিসাবে বলা হচ্ছে যে করোনার তৃতীয় ঢেউ আছড়ে পড়তে পারে। এই ঢেউয়ে শিশুরাও আক্রান্ত হতে পারে। এছাড়াও মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের এখনো ভ্যাকসিন দেওয়াও হয়নি। তাই এই আবহে কার্যত পরীক্ষা নেওয়া উচিৎ হবে না।

আরও পড়ুন-“অনেকগুলো বিষয়। একসাথে পড়তে অনেক চাপ।”- সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে নালিশ জানালো ৬ বছরের ছাত্রী।

প্রশ্ন উঠেছে যে এই দুই পরীক্ষা বাতিল হলে পরীক্ষার্থীদের মূল্যায়ন কিভাবে সম্ভব হবে?এই প্রসঙ্গে একটি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্যের শিক্ষা দপ্তর। মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা হবে কিনা এই মর্মে পড়ুয়াদের এবং অভিভাবকের থেকে মতামত চেয়েছে পশ্চিমবঙ্গ শিক্ষা দপ্তর। এছাড়াও জনসাধারণ‌ও তাঁদের মতামত জানাতে পারবেন। রাজ্য সরকার একটি ৬ জন সদস্য বিশিষ্ট বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠন করেছে।

আরও পড়ুন-করোনা আবহে পিছিয়ে দেওয়া হবে উচ্চমাধ্যমিক‌ও

এই কমিটি খুব শীঘ্রই তাদের রিপোর্ট পেশ করবেন রাজ্য সরকারের কাছে। আজ বেলা ২ টো পর্যন্ত জনসাধারণের মতামত নেওয়া হবে। রাজ্যবাসীরা তাঁদের মতামত জানাতে পারবেন নিম্নলিখিত ই মেইল মারফৎ-

[email protected]

[email protected]

[email protected]