শীঘ্রই খরা কবলিত এলাকায় পানীয় জল প্রকল্প শুরু করতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

শীঘ্রই খরা কবলিত এলাকায় পানীয় জল প্রকল্প শুরু করতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

নিজস্ব প্রতিবেদন: তৃতীয়বার নবান্নের সিংহাসনে আসীন হয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। একুশের ভোটে তিনি বিভিন্ন জনমোহিনী প্রতিশ্রুতি প্রদান করেছিলেন যা তাকে জয় এনে দিতে অনেকটাই সাহায্য করেছে এমনটাই মতামত রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের। তবে শুধুমাত্র প্রতিশ্রুতি দিয়েই ক্ষান্ত থাকেননি মুখ্যমন্ত্রী। তিনি পুরোদমে চেষ্টা করছেন তার প্রতিশ্রুতি গুলিকে বাস্তবায়িত করার।

তার অন্যতম হিট প্রকল্প ছিল দুয়ারে সরকার, দুয়ারে পুলিশ প্রভৃতি প্রকল্প গুলি। নির্বাচনে জেতার পরেই তিনি তার প্রতিশ্রুতি মত চালু করেছেন দুয়ারে রেশন প্রকল্প।বিভিন্ন জনসভায় গিয়ে তিনি প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন যে খরা কবলিত এলাকাগুলিতে তিনি পানীয় জলের বন্দোবস্ত করবেন। বিশেষ করে বীরভূম, পুরুলিয়ায় পানীয় জলের ব্যবস্থা তিনি করবেন বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন।

আরও পড়ুন-সদ্য মাতৃবিয়োগ হয়েছে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের। আত্মীয়দের দেওয়া ফল হাসপাতাল এবং অনাথ আশ্রমে বিতরণ করছেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

অবশেষে কথা রেখেছেন মুখ্যমন্ত্রী। পশ্চিমবঙ্গ সরকারের জনস্বাস্থ্য ও কারিগরি দপ্তরের উদ্যোগে শুরু হতে চলেছে পরিশুদ্ধ পানীয় জল সরবরাহের প্রকল্প।জানা গিয়েছে জাপানি সংস্থা জাইকার থেকে ঋণ নিয়ে খুব শীঘ্রই এই প্রকল্প শুরু হবে পুরুলিয়ায়। এর ফলে পুরুলিয়ার পাঁচটি ব্লক এবং পৌরসভা এলাকার আট লক্ষেরও বেশি মানুষ যথেষ্ট উপকৃত হবেন।

এই জাপানি সংস্থার সাথে দীর্ঘ পাঁচ বছর ধরে আলোচনা চালাচ্ছিল পশ্চিমবঙ্গ সরকার। এমনিতেই গ্রীষ্মকালে পুরুলিয়ায় প্রতি বছর বেশ কিছু অঞ্চলে খরা দেখা যায়। পানীয় জলের অভাবে সমস্যায় পড়েন বহু মানুষ। তাই খুব শীঘ্রই এই প্রকল্প শুরু করতে চলেছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার।

আরও পড়ুন-আগামী সোমবার থেকে সম্পূর্ণ লকডাউন ব্যারাকপুরে।

এই প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে প্রতিটি মানুষকে দৈনিক ৭০ লিটার বিশুদ্ধ পানীয় জল সরবরাহ করা যাবে। জনস্বাস্থ্য এবং কারিগরি দপ্তর ১ হাজার ২৯৬ কোটি টাকা খরচ করে এই প্রকল্প শুরু করতে চলেছে। এর জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের থেকে পাওয়া যাবে ১০৯ কোটি টাকা, রাজ্য দেবে ২৯৮ কোটি টাকার মত এবং জাইকা ঋণপ্রদান করবে ৮৯৮ কোটি টাকার মত।এই ঘোষণায় যথেষ্ট খুশী পুরুলিয়ার মানুষজন।

এর আগে বাঁকুড়া বিভিন্ন অঞ্চলেও পরিশুদ্ধ পানীয় জল পৌঁছে দেওয়া সম্ভব হয়েছে।