নিউজ

করোনা আবহে চীনের সাহায্যে আপত্তি নেই কেন্দ্রের। তবে দ্বিমত রয়েছে পাক সাহায্যে।

নিজস্ব প্রতিবেদন: ভারতে করোনার ভয়াবহ সন্ত্রাসকালে ঘাটতি দেখা দিয়েছে অক্সিজেনের। অক্সিজেনের জন্য রাশিয়া, ব্রিটেন থেকে শুরু করে আমেরিকা ফ্রান্স, সৌদি আরব প্রভৃতি দেশগুলির থেকে যথেষ্ট সাহায্য আসতে শুরু করেছে ভারতের বুকে। আমেরিকা থেকে ভারতে আসতে চলেছে ১০০ মিলিয়ন‌ ডলারের অতি গুরুত্বপূর্ণ করোনা চিকিৎসা সামগ্রী। আমেরিকা থেকে আসছে ৪৪০ টি অক্সিজেন সিলিন্ডার, এন-৯৫ মাস্ক, র‌্যাপিড ডায়াগনোস্টিক কিট, ১০০০ অক্সিজেন সিলিন্ডার।

পোর্টেবল অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটরের এর জন্য পিএম কেয়ার্স ফান্ড থেকে বিপুল পরিমাণ টাকা অনুমোদন করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। রাশিয়া থেকে এসেছে ১৫০ টি বেডসাইড মনিটর থেকে শুরু করে ২০ টি অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটর এবং ৭৫ টি অত্যাধুনিক ভেন্টিলেটর।এবার এগিয়ে এসেছে ভারতের প্রতিবেশী দেশ। ভারতের সঙ্গে বারবার শত্রুতায় লিপ্ত হয়েছে। কিন্তু ভারতীয় জনগণের এই দুর্বিসহ দিনগুলিতে সমস্ত বিবাদ ভুলে ভারতের পাশে দাঁড়ালো এই প্রতিবশী রাষ্ট্র। ভারতের অন্যতম এই প্রতিবেশী দেশ ভারতে পাঠাচ্ছে ২৫ হাজার অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটর।

আরও পড়ুন-“বিচারের আশায় ভোট দিয়েছি”- কান্নায় ভেঙে পড়ে বললেন কোচবিহারে শীতলকুচির নিহতের পরিবার

এই প্রতিবেশী দেশ হল চীন। এমনিতেই চীনের সাথে বর্তমানের সীমান্ত পরিস্থিতি যথেষ্ট উত্তপ্ত হয়ে রয়েছে ভারতে। কিন্তু এই বিপদজনক পরিস্থিতিতে মানবিকতার স্বার্থে ভারতের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে চীন। ভারতে নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূত টুইট করে এই কথা জানিয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন যে এই অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটর যাতে খুব দ্রুত ভারতে পাঠানো যায় তার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

দরিদ্র দেশের তকমা গা থেকে ঝেড়ে ফেলতে কোন প্রাকৃতিক বিপর্যয় এর ক্ষেত্রে বাইরের সাহায্য না নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল দিল্লি, কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসতে হয়েছে ভারতকে। ‌চীনের সাহায্যে ভারতের বিভিন্ন স্তরে সায় রয়েছে , কিন্তু দ্বিমত রয়েছে পাকিস্তানের সাহায্যে। ভারতকে সাহায্যের প্রস্তাব আগেই দিয়েছে পাকিস্তান। আমেরিকা তাদের প্রতিষেধক অ্যাষ্ট্রোজেনেকা ভারতেও পাঠাবে বলে জানিয়েছে। থাইল্যান্ড, সুইজারল্যান্ড, ফিনল্যান্ড, ভুটান, পর্তুগাল, সুইডেন, আয়ারল্যান্ড, বেলজিয়াম , রোমানিয়া, সিঙ্গাপুর, অষ্ট্রেলিয়া ভারতের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে।

Related Articles

Back to top button