“করোনা নিয়ে রাজনীতি করতে চায়না কেন্দ্র। রাজ্য সাহায্য প্রার্থনা করলে কেন্দ্র অবশ্যই সাহায্য করবে।”- বললেন শমীক ভট্টাচার্য।

“করোনা নিয়ে রাজনীতি করতে চায়না কেন্দ্র। রাজ্য সাহায্য প্রার্থনা করলে কেন্দ্র অবশ্যই সাহায্য করবে।”- বললেন শমীক ভট্টাচার্য।

নিজস্ব প্রতিবেদন: সারা ভারতজুড়ে সন্ত্রাসের কালো রাজত্ব চালাচ্ছে করোনাভাইরাস। ভারতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১ কোটি ৬২ লক্ষ ৬৩ হাজার ৬৯৫ জন। মৃত্যু হয়েছে ১ লক্ষ ৮৬ হাজার ৯২৮ জনের। সুস্থ্য হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১ কোটি ৩৬ লক্ষ ৪৮ হাজার ১৫৯ জন। পশ্চিমবঙ্গের বুকে মৃত্যু মিছিল জারি রয়েছে এই ভাইরাসের প্রভাবে। ‌ এখনো পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৭ লক্ষ ৯০৪ জন।

মৃত্যু ঘটেছে ১০ হাজার ৭৬৬ জনের। সুস্থ্য হয়েছেন ৬ লক্ষ ২১ হাজার ৩৪০ জন। এই আবহের মধ্যেই একুশের ভোট নিয়ে চলছে রাজনৈতিক নেতাদের দলাদলি।মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় করোনা আবহে কেন্দ্রীয় সরকারের দিকে বারবার অভিযোগের আঙুল তুলেছেন। তিনি বলেছেন যে রাজ্যকে কে পর্যাপ্ত ওষুধ এবং ভ্যাকসিন দিচ্ছেনা কেন্দ্র। ‌বিজেপি নেতা শমীক ভট্টাচার্য বলেছেন , “সবাই মিলে করোনার বিরুদ্ধে লড়তে হবে।

আরও পড়ুন-এবার ভার্চুয়াল সভা করবেন মুখ্যমন্ত্রী। জানালেন টুইট করে।

বিজেপি করোনা নিয়ে কোন রাজনীতি চায়না , রাজ্য সরকার যদি মনে করে যে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছ থেকে সহায়তা নেওয়া উচিৎ তাহলে কেন্দ্র সর্বসম্মতভাবে রাজ্যকে সহায়তা প্রদান করবে। আমরা আবেদন জানাচ্ছি বেলাশেষে করোনার নামে মানুষের মনে অযথা আতঙ্ক তৈরি করবেন না। আজ একদিকে করোনার এই ভয়াবহ পরিস্থিতির মধ্যেও যারা ভোট দিতে যাচ্ছেন তাদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে দয়া করে তাদেরকে আক্রমণ করবেন না। নির্বাচনকে অবাধ এবং শান্তিপূর্ণ করার দায়িত্ব বর্তমান শাসক দলের সব থেকে বেশি । কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে রাজ্যের প্রতিটি হিংসাত্মক ঘটনা শাসকদল যুক্ত হয়ে পড়ছে।”