নিউজ

স্বল্প টাকায় মেলেনি গাড়ি। চোখের জলে করোনায় মৃত স্ত্রীকে কাঁধে চাপিয়ে তিন কিলোমিটার হেঁটে শ্মশানে গেলেন স্বামী।

নিজস্ব প্রতিবেদন: সারা দেশে আতঙ্কের ভয়াবহ আবহে সূচনা করেছে করোনাভাইরাস। এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দিনের পর দিন মৃত্যু ঘটছে অসংখ্য মানুষের। দেশের বিভিন্ন রাজ্যের পরিস্থিতি যথেষ্ঠ শোচনীয়। ‌ এখনো পর্যন্ত রাজ্যগুলির সমস্ত মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়া সম্ভবপর হয়নি , আবার অমিল অক্সিজেন। অক্সিজেনের অভাবে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েছেন বেশ কয়েকজন মানুষ।

কোথাও দেখা গিয়েছে অ্যাম্বুলেন্স এর অভাবে ঘন্টার পর ঘন্টা পড়ে রয়েছে করোনা রোগীর মৃতদেহ। ‌ অনেক ক্ষেত্রে মৃতদেহগুলি বেওয়ারিশ লাশ হিসেবে পুড়ছে শ্মশানে শ্মশানে। ‌ অরাজক অবস্থা বিরাজ করছে চারদিকে। ‌ দেখা গিয়েছে একটি অ্যাম্বুলেন্সে ঠাসাঠাসি করে ভরা হয়েছে ২২ জন রোগীর মৃতদেহ। প্রথম পর্যায়ের থেকে আরো ভয়াবহ হয়ে উঠেছে এই দ্বিতীয় পর্যায়ের ভাইরাস। একদিকে অক্সিজেনের অভাবে বহু মানুষের মৃত্যু ঘটছে দেশে, আবার অপরদিকে মৃত ব্যাক্তিদের ঘন্টার পর ঘন্টা ফেলে রেখে দেওয়া হচ্ছে। এইরকমই একটি অমানবিক ঘটনা ঘটেছে তেলেঙ্গানার বুকে।

করোনায় মারা গিয়েছেন স্ত্রী। হতদরিদ্র স্বামী মৃত স্ত্রীকে নিয়ে যাওয়ার জন্য জোগাড় করতে পারেননি গাড়ি। যেটুকু টাকা কাছে ছিল তাতে রাজি হয়নি কেউই। অগত্যা অঝোরধারায় কাঁদতে কাঁদতে স্ত্রীর দেহ তার পরনের কাপড়ে জড়িয়ে কাঁধে চাপিয়ে তিন কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে শ্মশানে গেলেন অসহায় ব্যক্তি। সাহায্য করলেন না কেউই। এই অমানবিক ঘটনা ঘটেছে তেলেঙ্গানার কামারেড্ডিতে।

আরও পড়ুন-ভূমিকম্পে কেঁপে উঠলো আসাম। আসামের মুখ্যমন্ত্রী কে ফোন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

জানা গিয়েছে ওই মৃত মহিলার নাম নাগলক্ষী। তাঁদের আর্থিক অবস্থা যথেষ্ট শোচনীয় । কয়েকদিন আগেই ওই মহিলা গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন। কিন্তু তাদের এই হতদরিদ্র সংসারে করোনার চিকিৎসা করাতে সক্ষম হননি ওই ব্যাক্তি। যার ফলে গত রবিবার মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন ওই মহিলা। মৃত্যুর পর ওই মহিলার মৃতদেহ মাত্র তিন কিলোমিটার দূরে শ্মশানে নিয়ে যাওয়ার জন্য কোন গাড়ি পাননি ওই ব্যক্তি।

একদিকে স্ত্রীর মৃত্যুতে তিনি শোকস্তব্ধ হয়ে গিয়েছেন, অপরদিকে মাত্র কয়েকটা টাকার বিনিময় তিন কিলোমিটার দূরে শ্মশানে যেতে রাজি হচ্ছে না কোন গাড়ি, এই পরিস্থিতিতে মৃতার স্বামী চোখের জলে নিজেই তার স্ত্রীকে কাঁধে তুলে পায়ে হেঁটে রওনা দিলেন শ্মশান এর উদ্দেশ্যে। এই ঘটনাটি যথেষ্ট আলোড়ন ফেলে দিয়েছে সারা ভারতে। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই অমানবিক ঘটনাটি দেখে চোখের জল ধরে রাখতে পারছেন না কেউ‌ই।

Related Articles

Back to top button