শীঘ্রই ভারতীয় সেনাবাহিনীতে অন্তর্ভুক্ত হতে চলেছে ডিআরডিও’র সেরা অস্ত্র।

শীঘ্রই ভারতীয় সেনাবাহিনীতে অন্তর্ভুক্ত হতে চলেছে ডিআরডিও’র সেরা অস্ত্র।

নিজস্ব প্রতিবেদন: আজ বিশ্বের অন্যতম শক্তিধর দেশ ভারত। ভারতের কাছে রয়েছে উন্নত অস্ত্রের সম্ভার । দিন দিন সামরিক দিক দিয়ে আরো শক্তিশালী হচ্ছে ভারত। ভারতের অস্ত্রের ঝুলিতে রয়েছে বেশ কিছু উন্নত অস্ত্রশস্ত্র। যেমন ভারতের কাছে রয়েছে উন্নত যুদ্ধবিমান সুখোই, মীরাজ, রাফায়েল, মিগ-২৯ এবং আরো অন্যান্য শক্তিশালী যুদ্ধবিমান। এছাড়াও ভারতের কাছে রয়েছে উন্নত প্রযুক্তির ট্যাঙ্ক। রয়েছে বিভিন্ন ধরণের উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন মিসাইল।

আজ সামরিক দিক দিয়ে পৃথিবীর অন্যান্য দেশগুলোর মধ্যে ভারত নিজের জায়গা অনেকটাই দৃঢ় করেছে। এবার ভারতীয় সেনাবাহিনীর অন্তর্ভুক্ত হতে চলেছে ডিআরডিও’র তৈরি আরেক বিধ্বংসী এবং শক্তিশালী অস্ত্র।মরুভূমির বুকে পরীক্ষা হতে চলেছে ATAGS অর্থাৎ অ্যাডভান্সড্ টড আর্টিলারি গান সিস্টেম। মরুভূমির প্রচন্ড দাবদাহের মধ্যে এই যুদ্ধাস্ত্র পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলে তবেই সেনাবাহিনী এই যুদ্ধাস্ত্র কে তাদের অস্ত্রসম্ভারে অন্তর্ভুক্ত করবে।

আরও পড়ুন-৬ মাসের মধ্যে উপনির্বাচন হবে না? নতুন ছক বিজেপির।

ভারত ফরজ এবং টাটা পাওয়ার যৌথভাবে এই মারণাস্ত্র তৈরি করেছে বলে জানা গিয়েছে।এই আর্টিলারির রেঞ্জ হল প্রায় ৪৮ কিলোমিটার। ডিআরডিও’র চেয়ারম্যান জানিয়েছেন যে, এই জুনেই মরুভূমির বুকে এই উন্নত প্রযুক্তির অস্ত্রকে পরীক্ষা করা হবে। ১৫৫ মিমির এই দেশীয় প্রযুক্তির কামান দেশে সেনাবাহিনীতে ব্যাপক সাড়া ফেলবে বলে মনে করা হচ্ছে।সিক্কামে এই কামানের পরীক্ষা করা হয়েছে প্রায় ১৬০০০ ফুট উচ্চতায়। সেখানে খুব সহজেই নিজের কেরামতি দেখিয়েছে এই যুদ্ধাস্ত্র। এবার মরুভূমির বুকে এই যুদ্ধাস্ত্র পরীক্ষায় সফলভাবে উত্তীর্ণ হলেই শীঘ্রই এটি অন্তর্ভুক্ত হয়ে যাবে ভারতীয় সেনাবাহিনীতে।