কাঞ্চন, শ্রীময়ী এবং পিঙ্কির ব্যাক্তিগত সম্পর্কে না গলাবে না আর্টিস্ট ফোরাম”- মন্তব্য শান্তিলালের।

কাঞ্চন, শ্রীময়ী এবং পিঙ্কির ব্যাক্তিগত সম্পর্কে না গলাবে না আর্টিস্ট ফোরাম”- মন্তব্য শান্তিলালের।

নিজস্ব প্রতিবেদন: গত রবিবার থেকেই বাংলার মানুষের কাছে চর্চায় রয়েছে কাঞ্চন-পিঙ্কি-শ্রীময়ীর ত্রিকোণ প্রেমের গল্প। কাঞ্চন মল্লিকের সাথে শ্রীময়ী চট্টরাজের অবৈধ সম্পর্ক রয়েছে এবং তাঁরা দুজনে মিলে কাঞ্চনের স্ত্রী শ্রীময়ীকে আক্রমণ করেছেন এই অভিযোগে কাঞ্চন মল্লিকের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন তাঁর স্ত্রী পিঙ্কি। এদিকে পাল্টা অভিযোগ দায়ের করেছেন কাঞ্চন মল্লিক। এই ঘটনায় রীতিমতো বিতর্ক বাংলার মাটিতে।

ঠিক শোভন-বৈশাখীর মতোই এগোচ্ছে এই ঘটনা। এই প্রসঙ্গে কাঞ্চন মল্লিক পুরো দোষটাই দিয়েছেন তাঁর স্ত্রী পিঙ্কির উপরে। কাঞ্চন বলেছেন,”এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছে যে আজ লোক হাসানোর কাঞ্চন মল্লিক একা ঘরে বসে হাউমাউ করে কাঁদছে। ভগবানের দয়ায় শ্রীময়ী আর আমার আত্মসহায়ককে গত শনিবার সাথে নিয়েছিলাম বলেই আমার নামে ৪৯৮ ধারার মামলা করতে পারেনি পিঙ্কি।

আরও পড়ুন-“দাদার সাথে আমার নাম জড়িয়ে কলঙ্ক দেওয়ার কোন মানে হয়না”- কাঞ্চন বিতর্কে মুখ খুললেন শ্রীময়ী চট্টরাজ।

এমন আজেবাজে রটিয়েছে আমার নামে যে রাস্তায় বেরোতে লজ্জা করছে, কারো দিকে চোখ তুলে তাকাতে লজ্জা করছে। আমাকে ভরসা করে উত্তরপাড়া কেন্দ্রের বিধায়ক পদে আসীন করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। এখন আমি মুখ্যমন্ত্রী আর অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় কে কিভাবে মুখ দেখাবো? ”
এদিকে তাঁদের এই ত্রিকোণ প্রেমের গল্পে নাম জড়িয়েছে আর্টিস্ট ফোরামের।

আরও পড়ুন-“প্রকৃত ভালোবাসা বিরল।”- বেবি বাম্প নিয়ে প্রকাশ্যে ছবি দিতেই মন্তব্য যশের।

তাই আর্টিস্ট ফোরামের যুগ্ম সম্পাদক শান্তিলাল মুখোপাধ্যায় ফেসবুক পোস্টে লিখেছেন,”শ্রী কাঞ্চন মল্লিক, শ্রীমতী পিঙ্কি বন্দ্যোপাধ্যায় ও শ্রীমতী শ্রীময়ী চট্টরাজকে নিয়ে সম্প্রতি যে বিতর্কের সূত্রপাত হয়েছে, তার সঙ্গে আর্টিস্টস্ ফোরামের কোন সংশ্রব নেই।এনারা তিনজনেই কর্মসূত্রে ফোরামের সদস্য।তাঁদের যে সমস্যাটি সংবাদ মাধ্যম সূত্রে সকলের গোচরে এসেছে, তা একান্তই ব্যক্তিগত এবং এক্ষেত্রে কোনরকম ভূমিকা নেওয়ার এক্তিয়ার ফোরামের নেই।বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে ফোরামের নাম নিয়ে এই বিষয়ে যে মন্তব্য প্রকাশিত বা প্রচারিত হচ্ছে, তা সংস্থার ভাবমূর্তির পরিপন্থী এবং সর্বৈব মিথ্যা।”