নিউজপলিটিক্স

“রাজনীতিতে না লড়াই করতে পেরে এবার এজেন্সি লেলিয়ে দেওয়া হচ্ছে।”- কয়লা কান্ডে কেন্দ্রীয় সরকারকে আক্রমণ করলেন মুখ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদন: আবার মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে কয়লা কান্ড । কয়লা কান্ডে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য সস্ত্রীক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় কে ডেকে পাঠিয়েছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। আগামী ১ লা সেপ্টেম্বর অভিষেকের স্ত্রী রুজিরা এবং আগামী ৩ রা সেপ্টেম্বর অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় কে ডেকে পাঠিয়েছে ইডি। দিল্লিতে ইডি’র অফিসে তাঁদের তলব করা হয়েছে।

এছাড়াও জানা গিয়েছে পিনকন কান্ডে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য অভিষেকের আইনজীবীর সঞ্জয় বসুকেও তলব করেছে ইডি। একুশের ভোটের আগেই অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় স্ত্রী রুজিরা কে তলব করেছিলো সিবিআই। এছাড়াও রুজিরা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বোন কেও জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছিল।

আরও পড়ুন –পরপর তিনদিন রাজ্যে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা ৭০০ পার। কলকাতাতে অতিক্রম করলো ১০০

এবার তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তার স্ত্রীকে দিল্লি অফিসে ডেকে পাঠিয়েছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। এই বিষয়ে প্রথম থেকেই কেন্দ্রীয় সরকারকে আক্রমণ করে আসছেন তৃণমূল নেতারা। এই প্রসঙ্গে কুণাল ঘোষ আগেই বলেছিলেন যে কেন্দ্রীয় এজেন্সি দের ব্যবহার করে বাংলার প্রশাসকের উপর চাপ সৃষ্টি করতে চাইছে কেন্দ্রীয় বিজেপি সরকার।

এদিকে এই বিষয়ে আজ তৃণমূল ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠা দিবসে ভার্চুয়াল মঞ্চ থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ব্যাপক আক্রমণ শানিয়েছেন কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে। তিনি বলেছেন, “কয়লা চুরিতে শুধুমাত্র তৃণমূলের উপর দোষ চাপিয়ে দেওয়া হচ্ছে। সিআইএস‌এফ এই কয়লার নিরাপত্তার দ্বায়িত্বে ছিলো। একুশের ভোটের সময় যে সমস্ত নেতা-মন্ত্রী এসেছিল তারা আসানসোলে বড় বড় মাফিয়াদের হোটেলে ছিল।

আরও পড়ুন –আগামী দুর্গাপুজোয় করোনা বৃদ্ধির আশঙ্কার কথা জানিয়ে রাজ্যকে চিঠি দিলো কেন্দ্রীয় সরকার।

তারা সবাই এই চুরি চক্রের সাথে জড়িয়ে রয়েছে। আমাদের যদি একটা আঙ্গুল দেখানো হয় আমরা দশটা আঙ্গুল দেখাবো। এজেন্সি দিয়ে ভয় দেখানো হচ্ছে। আমাদের কাছে গাদা গাদা প্রমাণ রয়েছে। ‌ইডি আগে তদন্ত করে দেখুক যে বিজেপির বড়ো বড়ো নেতাদের কাছে কত কোটি কোটি টাকার সম্পত্তি রয়েছে। রাজনীতিতে আমাদের সাথে লড়তে পারছে না বলে কেন্দ্রীয় এজেন্সি লেলিয়ে দিচ্ছে বিজেপি সরকার।”

Related Articles

Back to top button