নিউজ

হঠাৎ করেই কালো জল। আতঙ্ক ছড়ালো দীঘার পর্যটকদের মধ্যে।

নিজস্ব প্রতিবেদন: সৈকত সুন্দরী দীঘা। আপামর বাঙালি সমুদ্রের গভীর আকর্ষণে সাড়া দিয়ে পাড়ি জমান দীঘায়। কলকাতার কাছাকাছি অত্যন্ত জনপ্রিয় ভ্রমণ স্থান হলো বাঙালির সাধের দীঘা। তবে বর্তমানে করোনার ভয়াবহ পরিস্থিতিতে দীঘার বুকে পর্যটকের সংখ্যা অনেকটাই হ্রাস পেয়েছে।

তার উপরে কয়েকদিন আগের ইয়াসের তান্ডবে সমুদ্র তীরবর্তী এলাকা তছনছ হয়ে গিয়েছে। রাজ্য সরকার যুদ্ধকালীন পরিস্থিতিতে এই ধ্বংসস্তূপ মেরামত করতে সচেষ্ট হয়েছে। এরমধ্যে দীঘা প্রশাসন ঘোষণা করেছে একটি ডোজের ভ্যাকসিনের সার্টিফিকেট অথবা আরটিপিসিআর টেস্টের নেগেটিভ রিপোর্ট দেখিয়ে তবেই দীঘায় প্রবেশের অনুমতি মিলবে।

আরও পড়ুন – “উপর থেকে জ্ঞান ধাবিত হবে নীচে, এমন গণতন্ত্র আমরা চাই না”- মন্তব্য অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

এই আবহে এক চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটেছে দীঘা সমুদ্রতটে। আজ অনেক পর্যটক স্নান করছিলেন দীঘা সমুদ্রে। সকাল সাড়ে দশটা নাগাদ দীঘা সমুদ্রে জোয়ার এসেছিলো। জলোচ্ছ্বাস মিটে গেলে হঠাৎ দেখা যায় সমুদ্রের জল রীতিমতো কালচে বর্ণ ধারণ করেছে, সেই সাথে ফেনার উপস্থিতিও দেখা গিয়েছে। ঘোলাটে এই জলে নেমে রীতিমতো অস্বস্তিতে পড়ে যান বহু পর্যটক।

নুলিয়াদের পরামর্শে সকলেই জল থেকে সমুদ্রের পাড়ে উঠে আসেন। পর্যটকদের মনে রীতিমতো আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। হঠাৎ করে কেন জলের রং কালো বর্ণ ধারণ করেছে সেই বিষয়ে যথেষ্ট হতভম্ব হয়ে পড়েছে স্থানীয় প্রশাসন। তবে বিশেষজ্ঞদের মতে অতিরিক্ত জল দূষণ এর অন্যতম কারণ হতে পারে। স্থানীয় মানুষজন বলছেন যে এরকম আগেও হয়েছিলো।

Related Articles

Back to top button