নিউজপলিটিক্সরাজ্য

“মিথ্যের ঝুড়ি নিয়ে শ্বশুরবাড়ি গিয়েছেন জামাই।”- রাজ্যপালকে কটাক্ষ করলেন সায়নী ঘোষ

নিজস্ব প্রতিবেদন: রাজ্যে হিংসাত্মক পরিস্থিতির পরিপ্রেক্ষিতে একাধিকবার টুইট করেছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। এমনকি রাজ্যের এই হিংসাত্মক পরিস্থিতিকে কেন্দ্র করে সুপ্রিম কোর্টে জনস্বার্থ মামলা দায়ের হয়েছিল যাতে রাজ্যে রাষ্ট্রপতি শাসন জারি করা যায়। রাজ্যের এই হিংসাত্মক পরিস্থিতির অভিযোগে রাজ্যপালের কাছে সাক্ষাৎ করতে গিয়েছেন বিজেপির মোট ৫০ জন বিধায়ক। বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর নেতৃত্বে রাজ্যপালের সাথে দেখা করেছেন তারা।

রাজভবনের বারান্দায় বিধায়কদের সাথে কথা বলেছেন রাজ্যপাল। শুভেন্দু অধিকারীর সাথে বৈঠকের ২৪ ঘন্টা কাটার আগেই রাজ্যপাল গিয়েছেন দিল্লিতে। সেখানে গিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সাথে দেখা করেছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। এছাড়াও তিনি রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সাথেও দেখা করতে পারেন বলে জানা গিয়েছে।

আরও পড়ুন-জামাইষষ্ঠীর দিনেই নতুন পরিচিতি শোভন-বৈশাখীর

গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দিল্লির উদ্দেশ্যে র‌ওনা দিয়েছেন রাজ্যপাল। তিনি তিনদিন থাকবেন দিল্লিতে। বেশ কিছু বৈঠক তিনি সম্পাদন করবেন দিল্লির বুকে। তারপর তিনি কলকাতা ফিরবেন আগামী ১৮ ই জুন।

এদিকে রাজ্যপালের দিল্লী গমনের পরেই তাঁর উদ্দেশ্যে কটাক্ষ ছুঁড়ে দিয়েছেন মহুয়া মৈত্র। তিনি টুইট করে বলেছেন, “আঙ্কেল জি বলেছেন যে তিনি ১৫ ই জুন দিল্লি যাচ্ছেন। বাংলার রাজ্যপাল সাহেব আমাদের উপর অনুগ্রহ করুন দয়া করে আর ফিরবেন না।”এবার রাজ্যপালের দিল্লি গমনকে কটাক্ষ করলেন যুব তৃণমূল সভানেত্রী সায়নী ঘোষ‌ও।

আরও পড়ুন-“SAIL এর সিদ্ধান্তে লাটে উঠবে বাংলার শিল্পের পরিকাঠামো।”- কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কে চিঠি দিলেন অমিত মিত্র।

সায়নী ঘোষ টুইট করে বলেছেন,”নিরাপদে জামাই তাঁর গুলকিট (মিথ্যার সামগ্রী) নিয়ে পৌঁছে গিয়েছেন শ্বশুরবাড়ি। রাজ্যে হিংসাত্মক পরিস্থিতির সৃষ্টি করতে, প্রতি হিংসা চরিতার্থ করার জন্য একগাদা মিথ্যা নিয়ে তিনি গিয়েছেন।”

Related Articles

Back to top button