নানুরে বিজেপি প্রার্থীকে লক্ষ্য করে গুলিচালনা; কাঠগড়ায় তৃণমূল, বাড়ছে রাজনৈতিক তরজা!

নানুরে বিজেপি প্রার্থীকে লক্ষ্য করে গুলিচালনা; কাঠগড়ায় তৃণমূল, বাড়ছে রাজনৈতিক তরজা!

নিজস্ব প্রতিবেদন:-গতকাল চতুর্থ দফার ভোটের শুরু থেকেই পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন এলাকার রাজনৈতিক পরিস্থিতি অস্থির হতে দেখা যাচ্ছে। এদিন রবিবার দিনের শুরুতে বীরভূমের দুবরাজপুরে বিজেপি প্রার্থীর গাড়ি ভাঙচুর করার খবর সামনে আসে। যদিও এই ঘটনায় কোনো রকম ভাবে আহত হননি বিজেপি প্রার্থী।কিন্তু এই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই আবারো উত্তপ্ত হয়ে উঠল বীরভূমের নানুর।

এদিন হঠাৎ করেই নানুরের বিজেপি প্রার্থীর উপর গুলি চালানোর অভিযোগ ওঠে।স্বাভাবিকভাবেই অভিযোগের তীর গিয়েছে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের ওপর। ওয়াকিবহাল সূত্রের খবর অনুযায়ী, রবিবার প্রচারকাজ সেরে নানুরের বড়াগ্রামে এক দলীয় কর্মীর বাড়িতে ভোজনের কথা ছিল বিজেপি প্রার্থী তারকেশ্বর সাহার। সেই এলাকায় পৌঁছলে হঠাৎ করেই তার ওপর চড়াও হয় একদল দুষ্কৃতী। তাদের মধ্যে হঠাৎ করেই একজন বিজেপি প্রার্থী তারকেশ্বর সাহাকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়।

আরও পড়ুন-‘আধাসেনা এবং সরকারি কাজে নিযুক্ত সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানের প্রতি সর্বদা সম্মান দেখানো উচিত’;পরোক্ষভাবে মমতাকে আক্রমণ রাজ্যপালের!

কিন্তু সৌভাগ্যবশত সেই গুলি লক্ষ্যভ্রষ্ট হওয়ায় প্রাণে বেঁচে যান তারকেশ্বর বাবু। তবে আপাতত স্থানীয় অঞ্চলজুড়ে উত্তেজনা ছড়িয়ে রয়েছে জোরকদমে।আপাতত এই ঘটনায় অভিযোগ দায়ের করে তদন্ত শুরু করেছে নানুর থানার পুলিশ। তবে ঘটনায় কে বা কারা জড়িত ছিল এখনো পর্যন্ত জানা সম্ভব হয়নি। ঘটনার পর সেই এলাকাতেই অনেকক্ষণ বিজেপি প্রার্থী এবং তার অনুগামীরা আটকে ছিলেন।

পরে স্থানীয় পুলিশ গিয়ে তাদের উদ্ধার করে।আপাতত তৃণমূলের উপর সমস্ত ঘটনার অভিযোগ চাপানো হলেও স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব এই অভিযোগকে অসঙ্গত দাবি করে অস্বীকার করে দিয়েছে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য এদিন সকালেই ভাদুলিয়া গ্রামে দুবরাজপুরের বিজেপি প্রার্থী অনুপ সাহার গাড়িতে ভাঙচুর হয়। এই ঘটনাতেও তৃণমূলকে কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছে গেরুয়া শিবির।