নিউজটেক নিউজরাজ্য

“স্কুল ফি’র বকেয়া ৫০% না দিলে পড়ুয়াদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পারবে স্কুল”- নির্দেশিকা জারি আদালতের

নিজস্ব প্রতিবেদন: আগামী তিন সপ্তাহের মধ্যে অভিবাবকদের দু’বছরের বকেয়া স্কুল ফি’র ৫০% মিটিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দিলো কলকাতা হাইকোর্ট। নাহলে স্কুল গুলি পড়ুয়াদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে বলে নির্দেশিকা জারি করেছে আদালত।করোনা পরিস্থিতিতে যথেষ্ট পরিমাণে ফি বাড়িয়ে দিয়েছে বেসরকারি স্কুল গুলি , এই মর্মে গতবছর কলকাতা হাইকোর্টে বেশ কয়েকজন অভিভাবকরা মামলা দায়ের করেছিলেন। কলকাতা হাইকোর্ট অভিভাবকদের নির্দেশ দিয়েছিলো যে স্কুলের যে ফি বকেয়া রয়েছে তার অন্ততঃ ৮০% মিটিয়ে দিতে হবে।

কিন্তু স্কুলগুলি সমবেতভাবে আদালতের কাছে অভিযোগ করেছে যে অভিভাবকদের বেশীরভাগই এই নির্দেশ অমান্য করেছেন, এছাড়াও স্কুল কর্তৃপক্ষ রা জানিয়েছে যে, কোটি কোটি টাকার ফি বাকি পড়ে রয়েছে স্কুলগুলি মিলিয়ে। ফি দেওয়া হয়নি বলে বেসরকারি স্কুলের শিক্ষক শিক্ষিকাদের বেতন দিতে পারছে না স্কুলগুলি। যার ফলে যথেষ্ট সঙ্কটজনক পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে । অনলাইনে যেহেতু শিক্ষক শিক্ষিকারা ক্লাস করাচ্ছেন, তাই তাঁদের অবশ্যই বেতন দিতে হচ্ছে।

আরও পড়ুন-মাধ্যমিক পাশে পরীক্ষা না দিয়েই চাকরির বিজ্ঞপ্তি পোস্ট অফিসে‌।

আজ বিচারপতি ইন্দ্র প্রসন্ন মুখোপাধ্যায় এবং বিচারপতি মৌসুমী ভট্টাচার্যের ডিভিশন বেঞ্চ নির্দেশিকা দিয়েছেন যে, “অন্ততঃ ৮০% বকেয়া ফি স্কুলগুলিকে অবশ্যই মিটিয়ে দিতে হবে। নাহলে কড়া ব্যবস্থা নিতে পারবে স্কুলগুলি।” এছাড়াও আদালত জানিয়েছে যে, এমনিতেই বহু পরিবার এই করোনার জন্য নানান সঙ্কটজনক পরিস্থিতির মধ্যে পড়েছে, এই আবহে সচ্ছ্বল অভিভাবকরাও যদি স্কুল ফি না দেন, সেটি খুবই অমানবিক।

আরও পড়ুন-সুখবর মাদ্রাসা গুলির জন্য। খুব শীঘ্রই নিয়োগ হতে চলেছে চার হাজার শিক্ষক।

তাই আদালত এবার ৫০% বকেয়া স্কুল ফি জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে অভিভাবকদের। আদালত জানিয়েছে যে আগামী ৩ সপ্তাহের মধ্যে বকেয়া স্কুল ফি’র ৫০% মিটিয়ে দিতে হবে। নাহলে পড়ুয়াদের জরিমানা অথবা সাসপেন্ড করা হতে পারে।

Related Articles

Back to top button