পাঁচমাসের গর্ভবতী করোনা যোদ্ধা ডি.এস.পি শিল্পা সাহুকে স্যালুট ভারতবাসীর!

পাঁচমাসের গর্ভবতী করোনা যোদ্ধা ডি.এস.পি শিল্পা সাহুকে স্যালুট ভারতবাসীর!

নিজস্ব প্রতিবেদন:-করোনা অরিমারির দ্বিতীয় ঢেউ ইতিমধ্যে আছড়ে পড়েছে গোটা ভারতবর্ষে জুড়ে ।।প্রায় প্রতিদিনই কয়েক লাখ মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে ।মারা যাচ্ছে প্রায় কয়েক হাজার মানুষ । হাসপাতালে বেদের অভাবে রাস্তায় চিকিৎসাহীন ভাবে মারা যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে বেশ কয়েকটি জায়গায় । দুই ফুট দূরে দূরে জ্বলছে চিতা । এখন মানুষ কি করবে কিভাবে রেহাই পাবে তা ভেবে কূলকিনারা পাচ্ছেন না অনেকে ।

আমরা বাড়িতে বসে থেকে বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট বা খবরা-খবর পেলেও যারা প্রথম সারির যোধা যেমন স্বাস্থ্যকর্মী পুলিশকর্মী এনারা কিন্তু তাদের কাজ প্রতিনিয়ত অত্যন্ত নিষ্ঠার সাথে করে চলেছেন ।এবং তাদেরও পরিবার আছে তাদের শরীরে ভয় আছে । কিন্তু সেই সমস্ত কিছুকে উপেক্ষা করে তারা এগিয়ে চলেছে শুধুমাত্র ভারতবর্ষে কে বাঁচাবে বলে ।

আরও পড়ুন-“বাড়িতেই কিভাবে বানানো যায় অক্সিজেন”- গুগল করছেন সারা দেশবাসী।

ঠিক তেমনি একটি চিত্র ফুটে উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়াতে সেখানে দেখা যাচ্ছে যে এক পুলিশকর্মী অর্থাৎ এক মহিলা পুলিশ কর্মী গর্ভবতী । ছত্রিশগড়ের ডিএসপি শিল্পা সাহু পাঁচ মাসের গর্ভবতী । কিন্তু তারপরও তিনি কাজ থেকে বিরতি নেন নি ।বরং এই রোদের মধ্যে মাঝ রাস্তায় দাঁড়িয়ে তিনি তার ডিউটি পালন করছে । আর সেই ঘটনাটি ভিডিও এবং ছবি আকারে প্রকাশিত হয়েছে বিভিন্ন সোশ্যাল মাধ্যমে । তাকে সাধুবাদ জানিয়েছেন অনেকে ।। তার এই সক্রিয়তা , মানসিকতা ও একাগ্রতা কে কুর্নিশ জানিয়েছে অনেকে ।

যারা প্রথম শ্রেণীর যোদ্ধা তাদের কর্তব্য থেকে থাকে যে মানুষকে সচেতন করা । এবং এতকিছুর পরও মানুষ সচেতন হয় না বিনা মাস্ক এ ঘোরাফেরা করেন ।কিন্তু সেই ভিডিওতে দেখা গেছে যে ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হবার পরও সেই মহিলা পুলিশ কর্মী প্রখর রোদের মধ্যে দাড়িয়ে মানুষকে অনবরত সচেতন করে চলেছেন । যদিও তিনি পুলিশের উর্দি বা পোশাক পরেছিলেন না সাধারণ পোশাকে ছিলেন । তবুও তার এই নজিরবিহীন ঘটনাটি মানুষের মনকে জয় করেছে ব্যাপক পরিমাণে।